অফিস না করেও ১৫ বছর বেতন উত্তোলন!

আপডেট: 08:12:54 17/01/2018



img

ইলিয়াস হোসেন, তালা (সাতক্ষীরা) : তালা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিকেল টেকনিশিয়ান নাসির উদ্দীন প্রায় ১৫ বছর অফিস না করে বেতন উত্তোলন করে আসছেন বলে অভিযোগ উঠেছে।
ওই কর্মচারী রাজধানীর বাড্ডায় বসবাস করেন। তিনি সেখানে নিজস্ব বাসভবনের সঙ্গে ক্লিনিক স্থাপন করে রমরমা ব্যবসা করে যাচ্ছেন। হাসপাতালের একটি চক্র হাজিরা খাতায় ভুয়া স্বাক্ষর দিয়ে দিব্যি বেতন উত্তোলন করে নিয়মিত ঢাকায় পাঠিয়ে দেয়। আবার কোনো কোনো সময় তিনি নিজে এসে বেতনের টাকা নিয়ে যান।
এ ঘটনা জানাজানি হলে সাংবাদিকদের ‘ম্যানেজ’ করতে মাঠে নামে হাসপাতালের ওই চক্রটি।
অভিযোগ অকপটে স্বীকার করে নাসির উদ্দীন বলেন, ‘তালা থেকে বদরির জন্য বহুদিন চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি। কদিন আগেও উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তার কাছ থেকে বদলির জন্য ফরোয়ার্ডিং নিয়েছি। কিন্তু তাতে কোনো কাজ  হচ্ছে না।’
এদিকে, গুরুতর এই অনিয়মের বিষয়টি তদন্ত করে ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য জেলার সিভিল সার্জন, তালা উপজেলা নির্বাহী অফিসার, সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক ও স্থানীয় সংসদ সদস্যদের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন এলাকাবাসী।
বুধবার হাসপাতালে গিয়ে জানা যায়, নাসির উদ্দীন ২০০৩ সালে তালা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিকেল টেকনিশিয়ান হিসেবে যোগ দেন। কিন্তু তিনি এখানে কাজ করেন না। তার বসার কোনো জায়গাও হাসপাতালে নেই। তালা হাসপাতালের একটি প্রভাবশালী চক্র হাজিরা খাতা ও বেতন শিটে ভুয়া স্বাক্ষর দিয়ে নাসিরের বেতন উঠিয়ে ঢাকায় পাঠিয়ে দেয়।
হাসপাতাল-সংশ্লিষ্টরা জানান, বর্তমানে নাসির রাজধানীর বাড্ডায় নিজস্ব বাসভবনের সঙ্গে ক্লিনিক স্থাপন করে সেখানে রমরমা ব্যবসা করছেন। ২-৩ মাস পর মাঝে-মধ্যে তালা হাসপাতালে নাসির উদ্দীনের দেখা মেলে। তবে নাসির উদ্দীন তার বেতনের বড় একটি অংশ পান না। অনিয়মে সহযোগিতার বিনিময়ে সেই টাকা হাসপাতালের অসাধু চক্রটি ভাগাভাগি করে নেয়।
সংশ্লিষ্টরা আরো জানান, শুধু নাসির উদ্দীন নন, হাসপাতালের ডাক্তারসহ অনেক কর্মকর্তা-কর্মচারী দিনের পর দিন অফিসে না এসে বেতন ওঠাচ্ছেন। আর এসব ঘটনার নেপথ্যে কাজ করে হাসপাতালের শক্তিশালী চক্রটি।
এ ব্যাপারে জানতে চাইলে তালা উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. কুদরত-ই-খুদা বলেন, ‘আমি এখানে যোগ দেওয়ার পর থেকে মেডিকেল টেকনিশিয়ান মো. নাসির উদ্দীনকে মাত্র ২-৩ দিন দেখেছি। মাঝে মাঝে খোঁজ নিয়ে জানতে পারি তিনি ছুটিতে আছেন।’
উল্লেখ্য, তালা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ডাক্তার সংকট নিরসনসহ বিভিন্ন অনিয়ম বন্ধের দাবিতে সম্প্রতি স্থানীয় প্রেসক্লাবের উদ্যোগে মানববন্ধন কর্মসূচি পালিত হয়। এর পরই উদ্ঘাটিত হলো গুরুতর এই অনিয়মের কাহিনি।

আরও পড়ুন