উত্তাল পদ্মায় নৌযানে গাদাগাদি ঠাসাঠাসি

আপডেট: 02:44:38 19/07/2021



img

সুবর্ণভূমি ডেস্ক : শিমুলিয়া ঘাটে দুটি কন্ট্রোল রুম বসিয়েও লঞ্চে অতিরিক্ত যাত্রী ওঠা নিয়ন্ত্রণে রাখতে পারছে না পুলিশ।
কোভিডের ঝুঁকির মধ্যে উত্তাল পদ্মা পার হতে তিন কিলোমিটার ঘুরে চলছে সেখানকার সব ফেরি। এতে অতিরিক্ত সময় ফেরিতে গাদাগাদি-ঠাসাঠাসি করে থাকতে হচ্ছে যাত্রীদের।
বিআইডব্লিউটিসির শিমুলিয়া ঘাটের সহ-মহাব্যবস্থাপক মো. সফিকুল ইসলাম বলেন, “উত্তাল পদ্মায় ফেরি চলতে সমস্যা হচ্ছে। তীব্র স্রোতের কারণে সব ফেরি চলতে পারছে না। অন্যদিকে স্রোত ও পানি বাড়ায় তিন-চার কিলোমিটার ঘুরে চলছে ফেরিগুলো।
”এতে ফেরি যাওয়া-আসায় সময় লাগছে বেশি। ফলে ফেরির ট্রিপ কমে যাচ্ছে। এ কারণে ঘাটে গাড়ির জট লাগছে। শিমুলিয়া ঘাটেই পণ্যবাহী ট্রাকসহ অর্ধসহস্রাধিক গাড়ি আটকা পড়েছে।”
এখানে এখন ১৬টি ফেরি আর ৮৬টি লঞ্চ চলাচল করছে বলে তিনি জানান।
ওদিকে ধারণক্ষমতার অর্ধেক যাত্রী নিয়ে চলার কথা থাকলেও সোমবার সকালে দেখা গেছে, অতিরিক্ত যাত্রী নিয়ে ছেড়ে যাচ্ছে লঞ্চগুলো। লঞ্চ ঘাটে পা ফেলার জায়গা নেই। আর ফেরিতে গাদাগাদি-ঠাসাঠাসি করে দাঁড়িয়ে থাকছেন যাত্রীরা। লঞ্চ, ফেরি কোথাও কোনো রকম স্বাস্থ্যবিধির বালাই নেই।
মাওয়া নৌপুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ পরিদর্শক মো. সিরাজুল কবির বললেন, “পদ্মার প্রবল স্রোতে অতিরিক্ত যাত্রী বহন করছে ছোট আকারের লঞ্চগুলো। পরিস্থিতি সামাল দিতে সকালে ঘাটে পুলিশ দুটি কন্ট্রোল রুম বসিয়েছে। তবু যাত্রীদের ঠেকানো যাচ্ছে না।”
সূত্র: বিডিনিউজ

আরও পড়ুন