করোনায় আক্রান্ত হয়েছিলেন শামিম

আপডেট: 04:17:02 29/06/2020



img

স্টাফ রিপোর্টার : যশোরের ওষুধ ব্যবসায়ী মৃত শামিমুর রহমান  করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছিলেন। আজ রোববার রাতে পরীক্ষা করে তার নমুনাটি করোনা পজেটিভ হিসেবে শনাক্ত করে যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের জেনোম সেন্টারের পরীক্ষণ দল।
যশোরের সিভিল সার্জন ডা. শেখ আবু শাহীন সুবর্ণভূমিকে এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, আজ যেসব রিপোর্ট পজেটিভ হিসেবে শনাক্ত হয়, তার মধ্যে শামিমের নমুনাটিও রয়েছে।
শামিমুর রহমান (৪০) যশোর শহরের কাজীপাড়া এলাকার আনিসুর রহমানের ছেলে। তিনি শহরের চুয়াডাঙ্গা বাসস্ট্যান্ডে ‘আনোয়ারা ফার্মা’ নামে একটি ওষুধের দোকান চালাতেন। সঙ্গে টুকটাক ডাক্তারিও করতেন।
প্রায় তিন সপ্তাহ অসুস্থ থাকার পর তাকে যশোর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল। করোনার উপসর্গ থাকায় গত ২৬ জুন সকালে হাসপাতাল থেকে তার নমুনা সংগ্রহ করা হয়। কিন্তু সন্ধ্যার দিকে অবস্থার অবনতি হলে তাকে পাঠিয়ে দেওয়া হয় খুলনায়। সেখানে তিনি কোনো সরকারি হাসপাতালে চিকিৎসা পাননি। পরে বেসরকারি গাজী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রাত দশটার দিকে মারা যান শামিম।
এদিকে, করোনা রিপোর্ট না আসায় শামিমের মরদেহ রাখা ও দাফন নিয়ে জটিলতা সৃষ্টি হয়। জেনারেল হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের সঙ্গে ওই রাতে যোগাযোগ করতে না পারায় মর্গেও রাখা যায়নি মরদেহ। পরে পরিবারের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী অ্যাম্বুলেন্সেই মরদেহ রাখা হয় জেনারেল হাসপাতালের জরুরি বিভাগের সামনে
পরদিন ২৭ জুন দুপুরে যশোর কারবালা গোরস্থানে নির্মাণাধীন মসজিদের ছাদের নিচে গোসল শেষে তার জানাজা হয়। পরে কারবালা গোরস্থানে তাকে দাফন করে কোয়ান্টাম ফাউন্ডেশনের স্বেচ্ছাসেবীরা

আরও পড়ুন