করোনায় মৃত্যু ডাক্তারের, লাশ আসছে মণিরামপুর

আপডেট: 04:35:59 02/07/2020



img

মণিরামপুর (যশোর) প্রতিনিধি : করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে আব্দুল ওহাব নামে এক চিকিৎসকের মৃত্যু হয়েছে।
বুধবার দিবাগত রাত দেড়টার দিকে রাজধানীর ধানমন্ডির ল্যাবএইড হাসপাতালের আইসিইউতে মারা যান তিনি। এরআগে করোনা পজেটিভ রিপোর্ট আসায় গত শনিবার (২৭ জুন) তাকে ল্যাবএইড হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।
মৃত আব্দুল ওহাব ঢাকার হলি ফ্যামিলি মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের অবসরপ্রাপ্ত ডাক্তার। বয়স হয়েছিল ৭৮।
ডা. আব্দুল ওহাব যশোরের মণিরামপুর উপজেলার শ্যামকুড় ইউপির হাসাডাঙা গ্রামের মৃত ফজলুল করিমের ছেলে।
হৃদরোগ ও মেডিসিন বিশেষজ্ঞ এই চিকিৎসক টানা ৩৬ বছর ঢাকা হলি ফ্যামিলি মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে দায়িত্ব পালন করে অবসরে যান। এরপর তিনি ধানমন্ডি এলাকায় ডক্টরস ডায়াগস্টিক সেন্টারে নিয়মিত রোগী দেখতেন।
শ্যামকুড় ইউপি চেয়ারম্যান মনিরুজ্জামান মনি বলেন, ধানমন্ডি এলাকায় পরিবার নিয়ে থাকতেন ডা. আব্দুল ওহাব। করোনা পজেটিভ রিপোর্ট আসায় গত শনিবার তাকে ল্যাবএইড হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এরপর ওই হাসপাতালের আইসিইউতে চিকিৎসকদের নিবিড় পর্যবেক্ষণে থাকা অবস্থায় বুধবার দিবাগত রাত একটা ৪০ মিনিটে তিনি মারা যান।
বৃহস্পতিবার (২ জুলাই) সকালে স্বজনরা তার মরদেহ নিয়ে মণিরামপুরের উদ্দেশে রওয়ানা হন। দুপুরে জানাজা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে ডা. আব্দুল ওহাবকে দাফন করা হবে বলে জানান চেয়ারম্যান মনি।
ডা. আব্দুল ওহাব মণিরামপুরের মানুষের কাছে গরিবের ডাক্তার হিসেবে পরিচিত ছিলেন। এই এলাকার কোনো রোগী তার কাছে চিকিৎসা নিতে গেলে তিনি বিনা পয়সায় তাদের সেবা দিতেন।
এছাড়া ডাক্তার ওহাব নিজ এলাকায় কয়েকটি মসজিদ-মাদরাসার প্রতিষ্ঠাতা। মৃত্যুর পূর্বমুহূর্ত পর্যন্ত তিনি স্থানীয় নাগরঘোপ হাইস্কুলের পরিচালনা পর্ষদের সভাপতির দায়িত্ব পালন করেছেন।

আরও পড়ুন