কুষ্টিয়ায় ‘বন্দুকযুদ্ধে’ হেফাজতে থাকা ‘ডাকাত’ নিহত

আপডেট: 01:19:29 25/03/2020



img

কুষ্টিয়া প্রতিনিধি : কুষ্টিয়া সদর উপজেলার হরিপুরের শালদা গ্রামে পুলিশের সঙ্গে কথিত বন্দুকযুদ্ধে মো পারভেজ খান (৩০) নামে এক যুবক নিহত হয়েছেন; যাকে ডাকাত বলা হচ্ছে। বুধবার রাত তিনটার দিকে এই ঘটনা ঘটে।
ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ একটি বিদেশি পিস্তল, একটি ম্যাগাজিন, তিন রাউন্ড গুলি ও রামদা উদ্ধারের দাবি করেছে। এই ঘটনায় তিন পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন বলেও তাদের ভাষ্য।
নিহত পারভেজ কুষ্টিয়া শহরের রাজারহাট এলাকার ইউসুফ আলী খানের ছেলে। তার বিরুদ্ধে বিভিন্ন থানায় ডাকাতিসহ নয়টি মামলা রয়েছে বলে পুলিশ জানায়।
কুষ্টিয়া মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. গোলাম মোস্তফা বলছেন, ‘আমরা পারভেজকে আটকের পর তার দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে ডাকাতির কাজে ব্যবহৃত অস্ত্র উদ্ধারে কুষ্টিয়া সদরের হাটহরিপুর ইউনিয়নের শালদা গ্রামে যায়। সেখানে ওত পেতে থাকা ডাকাত দলের সদস্যরা পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে। আত্মরক্ষার্থে পুলিশও পাল্টা গুলি চালালে ডাকাতরা পালিয়ে যায়। এরপর পুলিশ ঘটনাস্থলে পারভেজকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখে তাকে উদ্ধার করে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যায়। হাসপাতালের জরুরি বিভাগে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।’
ওসি বলেন, ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ একটি বিদেশি পিস্তল, একটি ম্যাগাজিন, তিন রাউন্ড গুলি ও রামদা উদ্ধার করেছে। এই ঘটনায় তিন পুলিশ সদস্য আহত হয়েছে। পারভেজের বিরুদ্ধে বিভিন্ন থানায় ডাকাতিসহ নয়টি মামলা রয়েছে।
নিহতের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

আরও পড়ুন