কেশবপুরে আড়তদারকে কুপিয়ে ‘ছিনতাই’

আপডেট: 07:32:46 13/02/2020



img

স্টাফ রিপোর্টার, কেশবপুর (যশোর) : কেশবপুরে এক আড়তদারকে কুপিয়ে প্রায় এক লাখ টাকা ছিনতাইয়ের অভিযোগে পাঁচজনের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে।
গত বুধবার রাতে উপজেলার আলতাপোল গ্রামের মোজাফফার বিশ্বাস মামলাটি করেন। মুমূর্ষু অবস্থায় ওই ব্যবসায়ী বর্তমানে ঢাকার নিউরো সায়েন্স ইনস্টিটিউটে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।
থানায় দেওয়া অভিযোগে বলা হয়েছে, উপজেলার আলতাপোল গ্রামের মোজাফফার বিশ্বাসের ছেলে মাসুদুজ্জামান দীর্ঘদিন ধরে কেশবপুর শহরের কাঁচাবাজারে আড়তদারি করে আসছেন। বেশ কিছুদিন ধরে মাসুদুজ্জামানের সঙ্গে একই গ্রামের রাশেদ শেখের শত্রুতা চলছে। গত ১০ ফেব্রুয়ারি রাত সাড়ে আটটার দিকে মাসুদুজ্জামান কাঁচাবাজারে ব্যবসায়ীদের কাছে পাওনা টাকা আদায় করতে যান। ফিরোজের দোকানের সামনে পৌঁছালে রাশেদের নেতৃত্বে ৫-৬ জন যুবক ধারালো দা, লোহার রড দিয়ে মাসুদুজ্জামানকে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে ও পিটিয়ে মারাত্মক জখম করে। এসময় অস্ত্রধারী যুবকরা তার কাছ থেকে নগদ ৯০ হাজার ২০০ টাকাসহ ব্যাগটি ছিনিয়ে নিয়ে যায়।
উপস্থিত ব্যবসায়ীরা মাসুদুজ্জামানকে উদ্ধার করে প্রথমে কেশবপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে যশোর জেনারেল হাসপাতালে রেফার করেন। সেখানেও তার অবস্থার অবনতি হলে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকার নিউরো সায়েন্স ইনস্টিটিউটে ভর্তি করা হয়। তার অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে সেখানকার চিকিৎসকদের বরাত দিয়ে পরিবার-সদস্যরা জানিয়েছেন।
এ ঘটনায় বুধবার রাতে মাসুদুজ্জামানের বাবা মোজাফফার বিশ্বাস মণিরামপুর উপজেলার আটঘরা গ্রামের মনি, তৌহিদ, কেশবপুরের আলতাপোল গ্রামের রাশেদ, জিয়ার ও মন্টুকে আসারি করে থানায় মামলা করেন।
কেশবপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. আবু সাঈদ বলেন, হামলায় ওই ব্যবসায়ীর মাথা গুরুতর জখম হয়েছে। আসামিদের গ্রেফতারে অভিযান চলছে।

আরও পড়ুন