চৌগাছায় ৫০০ হেক্টরে পেঁয়াজ চাষ

আপডেট: 09:50:17 10/02/2020



img

রহিদুল ইসলাম খান, চৌগাছা (যশোর) : চৌগাছা উপজেলায় চলতি মওসুমে প্রায় ৫০০ হেক্টর জমিতে পেঁয়াজ চাষ হয়েছে।
চৌগাছা কৃষি অফিস সুত্রে জানা যায়, এ মওসুমে উপজেলার দশটি ইউনিয়ন ও একটি পৌরসভায় ৪৯০ হেক্টর জমিতে পেঁয়াজ চাষ করা হয়েছে। এর মধ্যে ফুলসারা ইউনিয়নে ২৫ হেক্টর, পাশাপোলে ৫৫, সিংহঝুলিতে দশ, ধুলিয়ানীতে ২৫, চৌগাছা সদরে ৪০, জগদীশপুরে ৩০, পাতিবিলায় ৩০, হাকিমপুরে ৩০, স্বরুপদাহে ৮৫, নারায়ণপুরে ৬০, সুখপুকুরিয়ায় ৮০ এবং চৌগাছা পৌরএলাকায় ২০ হেক্টর জমিতে পেঁয়াজের চাষ করা হয়েছে।
রামকৃষ্ণপুর গ্রামের পেঁয়াজ চাষি আজিজুর রহমান বলেন, ‘এ বছর আমি তিন বিঘা জমিতে পেঁযাজের চাষ করেছি। বাজারে দাম ভালো, তাই আশা করছি ভালো মুনাফা হবে।’
একই গ্রামের লাবলু , উসমান গনি প্রমুখ জানান, প্রতিবছর তারা পেঁয়াজ চাষ করেন কিন্তু তেমন লাভ হয় না। এ বছর বাজারে যেহেতু দাম ভালো, তাই তাদের আশা, বেশ মুনাফা হবে।
রামকৃষ্ণপুর গ্রামের জিয়াউর রহমান বলেন, ‘আমরা অধিকাংশ জমিতে ধানের চাষ করি। এ বছর পেঁয়াজ চাষ করেছি লাভের আশায়। দেখি কী হয়!’
আজমতপুর গ্রামের মনিরুল ইসলাম বলেন, ‘আমি তিন বিঘা জমিতে পেঁয়াজের চাষ করেছি। আশা করছি, ভালো ফলন হবে।’
চৌগাছা উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা রইচ উদ্দিন বলেন, ‘এবছর বাজারে পেঁয়াজের ভালো দাম রয়েছে। সেকারণে পেঁয়াজের চাষ বেশি হয়েছে। পেঁয়াজের ফলনও ভালো হবে বলে আশা করছি । আমরা প্রতিনিয়ত চাষিদের পাশে থেকে পরামর্শসহ নানা প্রকার সহযোগিতা করে যাচ্ছি।’
কৃষি অফিসের তথ্য প্রদানকারী কর্মকর্তা তরিকুল ইসলাম বলেন, চলতি মওসুমে এ উপজেলায় অন্যবারের তুলনায় পেঁয়াজ চাষ বেশি হয়েছে। বাজারদর বেশি হওয়ায় চাষ বেড়েছে বলে তার অভিমত।

আরও পড়ুন