জামাতে নামাজ, কালীগঞ্জে ১৭ শিশুকে উপহার

আপডেট: 04:12:29 19/07/2021



img

কালীগঞ্জ (ঝিনাইদহ) প্রতিনিধি: কালীগঞ্জে নামাজ পড়ায় উদ্বুদ্ধ করতে সাত শিশুকে বাইসাইকেল উপহার দেওয়া হয়েছে। এছাড়া দশ শিশুকে জায়নামাজ ও একটি করে নামাজ শিক্ষা বই ও মগ দেওয়া হয়।
সোমবার জোহরের নামাজ শেষে কালীগঞ্জ উপজেলা জামে মসজিদ থেকে এই সাইকেল শিশুদের হাতে তুলে দেন ঝিনাইদহ-৪ আসনের সংসদ সদস্য আনোয়ারুল আজিম আনার।
তখন আরো উপস্থিত ছিলেন, কালীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার সাদিয়া জেরিন ও উপজেলা জামে মসজিদের ইমাম মাওলানা রুহুল আমিনসহ মুসল্লিরা।
সম্প্রতি ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ উপজেলা জামে মসজিদ কমিটি ঘোষণা করে, কোনো শিশু একাধারে ৪০ দিন পাঁচ ওয়াক্ত মসজিদে জামাতে নামাজ পড়লে তাকে একটি বাইসাইকেল উপহার দেওয়া হবে। শর্ত হলো, সাথে তার অভিভাবককে এশা ও ফজরের নামাজ ছেলের সাথে জামাতে পড়তে হবে। এরপর নির্ধারিত দিন থেকে ১৭টি শিশু এই আহ্বানে সাড়া দেয়; যাদের প্রত্যেকের বয়স অনূর্ধ্ব ১০। শেষ পর্যন্ত সাতটি শিশু ও তাদের অভিভাবকরা সফল হওয়ায় আজ তাদের সাইকেল উপহার দেওয়া হয়। এছাড়া চেষ্টা করেও বিফল হওয়া বাকি দশ শিশুকে বই, মগ ও জায়নামাজ উপহার দেওয়া হয়।
মাহদি মাসুম নামে একটি শিশু বলে, ‘আমি সাইকেল পেয়ে খুবই খুশি। আমি আর কখনো নামাজ ছাড়বো না।’
আহম্মেদ রেদোয়ান নামে অপর একটি শিশু বলে, ‘এই সাইকেলটি আমার জীবনের সব থেকে বড় উপহার। আমি এমন খুশি আর কখনোই হইনি।’
উপজেলা জামে মসজিদের ইমাম মাওলানা রুহুল আমিন বলেন, ‘আকাশ সংস্কৃতির ছোঁয়ায় আমাদের শিশুরা ধর্মীয় ও নৈতিক শিক্ষা থেকে পিছিয়ে পড়ছে। তাই আমরা শিশুদের নামাজের প্রতি আগ্রহী করে তুলতে এমন ঘোষণা দিয়েছিলাম। এজন্য পাঁচ সদস্যের একটি কমিটি গঠন করা হয়। যে কমিটি ৪০ দিন তাদের পর্যবেক্ষণ করে।’
অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি সংসদ সদস্য আনোয়ারুল আজিম আনার বলেন, ‘আমি আমার রাজনৈতিক জীবনে বহু সামাজিক-সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে যোগ দিয়েছি। তবে এমন অনুষ্ঠান আমি দেখিনি। এটাই আমার জীবনের শ্রেষ্ঠ অনুষ্ঠান।’

আরও পড়ুন