ঝিকরগাছায় শিশুকে বলাৎকারের অভিযোগ

আপডেট: 02:58:31 03/07/2020



img

সংবাদদাতা, শার্শা (যশোর) : ঝিকরগাছা কুমরী গ্রামে হুমায়ন কবির (২৬) নামের এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে আট বছর বয়সী এক শিশুকে বলাৎকারের অভিযোগ উঠেছে।
হুমায়ন উপজেলার কুমরী গ্রামের মালয়েশিয়া প্রবাসী আব্দুল কুদ্দসের ছেলে। ভিকটিম গরিব পরিবারের সন্তান হওয়ায় ন্যায়বিচার পাচ্ছে না বলে অভিযোগ।
অভিযোগে বলা হয়েছে, হুমায়ন কবির বৃহস্পতিবার দুপুর একটার দিকে একই গ্রামের একটি গরিব পরিবারের আট বছর বয়সী শিশুটিকে তালের শাঁস খাওয়ানোর লোভ দেখিয়ে বেত্রাবতী নদীর পাড়ে নিয়ে যায়।  ভর দুপুরে নদীর ধারে নির্জন জায়গায় শিশুটিকে বলাৎকার করে হুমায়ন। ওই সময় শিশুটির চিৎকারে স্থানীরা ছুটে এলে হুমায়ন দৌড়ে পালিয়ে যায়।
এঘটনার খবর পেয়ে বাঁকড়া পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের উপ-পরিদর্শক হিমানিস কুমার ঘটনাস্থলে যান। ঘটনাটি শোনার পর হুমায়নের মালয়েশিয়া প্রবাসী বাবা আব্দুল কুদ্দস ফোনে যোগাযোগ করে ওহাব মোল্লাসহ গ্রাম্য মাতব্বরদের ‘ম্যানেজ’ করে বিষয়টি ধামাচাপা দেওয়া চেষ্টা চালাতে থাকেন।
এদিকে, দুই দিন অতিবাহিত হলেও কোনো প্রতিকার না পাওয়ায় হতাশা প্রকাশ করছে পরিবারটি। তাদের ভাষ্য, গরিব বলে তারা ন্যায়বিচার পাচ্ছেন না।
ঘটনাস্থলে যাওয়া ঝিকরগাছার বাঁকড়া পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের উপ-পরিদর্শক হিমানিসের কাছে এই বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘ঘটনাস্থলটি নদীর ওপার সাতক্ষীরার কলারোয়া উপজেলার মধ্যে। ওসির স্যারের সাথে আমি কথা বলেছি। বিচারপ্রার্থীদের কলারোয়া থানায় যোগাযোগ করতে বলা হয়েছে।’
ঝিকরগাছা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আব্দুর রাজ্জাক বলেন, ‘বাঁকড়া পুলিশ তদন্ত কেন্দ্র থেকে আমাকে জানানো হয়েছে ঘটনাস্থল কলারোয়া উপজেলায়। তাই আমাদের আমাদের মামলা নেওয়ার এখতিয়ার নেই। ওনাদের কলারোয়া থানায় যোগাযোগ করতে বলা হয়েছে।’

আরও পড়ুন