তাহেরকে স্বাভাবিক জীবনে ফেরাতে দরকার এক লাখ টাকা

আপডেট: 02:44:03 22/10/2020



img
img

মৌসুমী নিলু, নড়াইল : নড়াইলে সাত বছরের এতিম শিশু তাহের কিছু অর্থের অভাবে দিন দিন বিকলাঙ্গ হয়ে যাচ্ছে।
দুই বছর আগে শার্টে আগুন লেগে গলা থেকে শরীরের কয়েকটি অংশ পুড়ে যায়। সেই থেকে শিশুটি আর ঠিকমতো কথা বলতে পারে না, মুখ বন্ধ করতে পারে না এবং ঠিকমতো খেতেও পারে না। এক সময় হাসতে-খেলতে, কথা বলতে পারলেও প্রাণোচ্ছল শিশুটি এখন মানুষের দিকে ফ্যাল ফ্যাল করে চেয়ে থাকে। তাহেরের এক গরিব খালা মানুষের কাছে হাত পেতে দুই লাখ টাকার বেশি টাকা সংগ্রহ করেছিলেন। তা দিয়ে তাহেরের চিকিৎসা হয়। এখন পুরো স্বাভাবিক অবস্থায় ফেরাতে একটি অপারেশন প্রয়োজন। এজন্য প্রায় এক লাখ টাকা লাগবে।
স্থানীয়রা জানিয়েছেন, সদর উপজেলার আউড়িয়া ইউনিয়নের মুলদাইড় গ্রামের ফারুক হোসেনের (৩০) স্ত্রী লিছিমান বেগম পাঁচ বছর আগে মারা যান। এরপর ছেলেকে ফেলে আরেকটি বিয়ে করে চলে যান ফারুক। এ অবস্থায় পোশাক কারখানায় চাকরিরত তার খালা রুমা আক্তার ঢাকায় নিজের কাছে নিয়ে যান শিশু তাহেরকে। একদিন খেলার সময় গ্যাস লাইট থেকে শার্টে আগুন ধরে গেলে তাহেরের শরীরের বিভিন্ন জায়গা পুড়ে যায়। তাহের ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রায় সাত মাস চিকিৎসাধীন ছিল। শরীরে আগুনের ক্ষত শুকিয়ে গেলেও মুখের নীচে, গলা ও কণ্ঠনালির কাছে চামড়া ভাঁজ ভাঁজ হয়ে যাওয়ায় সে এখন ঠিকমতো কথা বলতে, মুখ বন্ধ করতে এবং ঠিক মতো খেতেও পারে না।
রুমা বলেন, ‘অনেক কষ্ট করে অন্যের কাছে হাত পেতে, ভিক্ষা করে নিজের আয়ের অর্থ দিয়ে দুই লাখ টাকার বেশি খরচ করে প্রাথমিকভাবে তাহেরকে বাঁচিয়েছি। চিকিৎসকরা বলেছেন, ছয় মাস পর তাহেরের অপারেশন করতে হবে। তাহলে সে আগের মতো স্বাভাবিক হয়ে যাবে। এজন্য এক লাখ টাকার মতো লাগবে। করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব শুরু হওয়ার পর চাকরি চলে যাওয়ায় নড়াইলে চলে এসেছি। নিজেই খেতে পারি না। তাহেরকে কীভাবে বাঁচাবো?’
ইতিমধ্যে ছয় মাস পার হয়ে গেছে। তাহেরের চিকিৎসার্থে সমাজের বিত্তবানরা যদি এগিয়ে আসেন তাহলে হয়তো সে আবার স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আসবে।
এ ব্যাপারে আউড়িয়া ইউনিয়নের সাত নম্বর ওয়ার্ড মেম্বার বদরুল আলম ভূঁইয়া বলেন, ছেলেটির বাবা-মা কেউ নেই। স্থানীয়ভাবে বিভিন্ন সময় তাকে সাহায্য-সহযোগিতা করা হয়েছে। শিশুটির সুস্থতার জন্য তিনি সমাজের বিত্তবারদের সহযোগিতা কামনা করেছেন।
শিশুটির চিকিৎসায় সহযোগিতা করতে যোগাযোগ করা যেতে পারে ০১৯৬৭-৩৯৮৪৩০ নাম্বারে (তাহেরের ফুফু মনোয়ারা বেগমের নাম্বার)।