তৃতীয় দিনেও জমেনি বইমেলা

আপডেট: 09:37:50 20/03/2021



img

সুবর্ণভূমি ডেস্ক : বাঙালির প্রাণের বইমেলার তৃতীয় দিন শনিবার (২০ মার্চ)। কিন্তু তৃতীয় দিনেও মেলা জমেনি বলে জানিয়েছে বিক্রেতারা। সাপ্তাহিক ছুটির দিনে মেলা শুরু হয় সকাল ১১টায়। শেষ হয় রাত নয়টায়। কিন্তু ছুটির দিনে সকালের দিকে বইমেলা শুরু হলেও সকালে পাঠক একদম ছিল না।
বিক্রেতারা জানিয়েছেন, সকালের দিকে মেলা প্রাঙ্গণে একটা রমরমা ভাব থাকে। যার ফলে পাঠক আসতে চায় না। তবে, বিকেলের দিকে কিছু পাঠক আসলেও অন্যান্য বছরের তুলনায় তা অনেক কম ছিল। এমনকি শুক্রবার সাপ্তাহিক ছুটির দিনের তুলনায় শনিবার মেলায় কম পাঠক ছিল বলে বিক্রেতারা জানিয়েছে।
এ বিষয়ে অন্যপ্রকাশের বিক্রেতা মাহিয়া বলেন, সকালে রোদ্রের কারণে অনেকে মেলায় আসতে চায় না। আজ মেলায় তেমন পাঠক ছিল না বললেই চলে। গতকালের থেকে কম পাঠক এসেছে।
বিক্রেতারা জানিয়েছেন, মেলার পাঠক আসলেও তাদের খুব বেশি বই কিনতে দেখা যায়নি। পাঠকদের মধ্যে অনেকে ক্যাটালক নিতে আবার অনেকে দেখতে বা ঘুরতে আসছেন। তবে, আয়োজক ও বিক্রেতারা জানিয়েছেন, এক সপ্তাহ পর বইমেলার পরিবর্তন আসবে। মেলায় পাঠকদের সংখ্যা বাড়বে। বই বিক্রিও বেশি হবে।
শনিবার বিকেলে মেলার প্রাঙ্গণ ঘুরে দেখা যায়, এখনও মেলার অনেক স্টল ও প্যাভিলিয়নের অনেক কাজ বাকী। মেলায় পাঠক, প্রকাশক ও স্টলে কর্মরত কর্মচারীরা স্বাস্থ্যবিধি মানছেন না বলে অভিযোগ অনেকের।
মেলায় শনিবার নতুন বই এসেছে ১০৪টি। বিকেল ৪টায় বইমেলার মূল-মঞ্চে অনুষ্ঠিত হয় স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী : স্বাধীনতার ঘোষণাপত্র শীর্ষক আলোচনা অনুষ্ঠান। অনুষ্ঠানে আবুল মোমেন লিখিত প্রবন্ধ পাঠ করেন বাংলা একাডেমির সহপরিচালক সাহেদ মন্তাজ। আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন আবুল কাশেম এবং ফওজুল আজিম। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন অধ্যাপক খুরশীদা বেগম।
এসময় আলোচকরা বলেন, বাংলাদেশের স্বাধীনতা ঘোষণা ও ঘোষণাপত্র নিয়ে অনেক অযথা বিতর্কের জন্ম দেয়া হয়েছে, এ সম্পর্কিত ইতিহাসকে রাষ্ট্রীয় প্রভাব খাটিয়ে বিকৃত করার চেষ্টা করা হয়েছে। তারা বলেন, বঙ্গবন্ধু এদেশের অবিসংবাদিত নেতা হিসেবে স্বাধীনতার রূপকল্প একাত্তরের বহু আগেই তৈরি করে রেখেছিলেন। ১৯৭১-এর ৭ই মার্চ তাঁর ঐতিহাসিক বক্তৃতার মধ্য দিয়ে স্বাধীনতার সূত্রগুলো এদেশের জনগণের কাছে উপস্থিত করে, তাদের আসন্ন মুক্তিযুদ্ধের জন্য তৈরি করে ২৬শে মার্চ বাংলাদেশের স্বাধীনতা ঘোষণা করেন। এ নিয়ে কোনো বিভ্রান্তির অবকাশ নেই। স্বাধীনতার ঘোষণাপত্রে বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশ রাষ্ট্রের নির্মাণ-কল্পনা প্রকাশ করেন, যা যুগ যুগ ধরে স্বাধীনতা সংহত করার প্রেরণা দিয়ে যাবে।
রোববার (২১ মার্চ) অমর একুশে বইমেলার ৪র্থ দিন। মেলা চলবে বিকেল ৩টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত। বিকেল ৪টায় বইমেলার মূল-মঞ্চে অনুষ্ঠিত হবে স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী : স্বাধীন বাংলা বেতারকেন্দ্র শীর্ষক আলোচনা অনুষ্ঠান। প্রবন্ধ উপস্থাপন করবেন অধ্যাপক নিরঞ্জন অধিকারী। আলোচনায় অংশগ্রহণ করবেন কল্যাণী ঘোষ, বুলবুল মহলানবীশ এবং আশরাফুল আলম। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করবেন রামেন্দু মজুমদার।
সূত্র- সময় নিউজ

আরও পড়ুন