ধর্ষণ মামলার ব্যাপারে ভিপি নুর যা বলছেন

আপডেট: 07:24:43 21/09/2020



img

সুবর্ণভূমি ডেস্ক : ধর্ষণে সহযোগিতার অভিযোগে দায়ের করা মামলাটি উদ্দেশ্যমূলক বলে মনে করছেন ডাকসু ভিপি নুরুল হক নূর।
গণমাধ্যমে দেওয়া প্রতিক্রিয়ায় তিনি বলেন, ‘যিনি মামলা করেছেন তার সঙ্গে আমার কোনদিন দেখা হয়নি। দুই মাস আগে আমাকে ফোন দিয়ে সহযোগিতা চেয়েছেন যে, কোনো এক ছেলের সঙ্গে তার সম্পর্ক ছিল, যেটি নিয়ে সমস্যা হচ্ছে। সে জন্য আমাকে ভূমিকা রাখতে বলা হয়। এরপর ফোন দেবে বলে আর কোনো যোগাযোগ করেননি।’
নূর বলেন, ‘মামলার বাদী এক সময়ে ওই ছেলেটির পরিচয় দেয় আমাকে এবং বলে আমরা যেন ছেলেটিকে সংগঠন থেকে বহিষ্কার করি। কিন্তু আমি খোঁজ নিয়ে জানি, ছেলেটির নাম নাজমুল। সে আমাদের সংগঠনের কোনো দায়িত্বে নেই। তবে সে আমাদের বিভিন্ন কর্মসূচিতে উপস্থিত থাকতো।’
‘তাই আমি অভিযোগকারীকে বলেছি, সে তো আমাদের সংগঠনের কেউ না, পদেও নেই।’
তিনি বলেন, ‘এরপর মেয়েটি বলে, নজমুলসহ আরো একজনকে বহিষ্কার করতে হবে; যে হচ্ছে আমাদের আহ্বায়ক হাসান আল মামুন। কিন্তু আমি তাকে বলি, সে তো আমাদের আহ্বায়ক। আমি আহ্বায়ককে কীভাবে বহিষ্কার করবো? আপনার সমস্যা মনে হলে আমি আইনগত সহযোগিতা করবো। বিশ্ববিদ্যালয়ের যৌন নিপীড়নবিরোধী সেলে অভিযোগে সহযোগিতা করবো। কিন্তু শেষে তিনি আর যোগাযোগ রাখেননি।’
নুর বলেন, ‘আমি মনে করি মামলাটি উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে করা। আর মেয়েটির বাড়ি ময়মনসিংহে। আমি যতটুকু জানতে পেরেছি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের একজন নেতা মেয়েটিকে টাকা-পয়সা দিয়ে মামলা করতে উদ্বুদ্ধ করেছেন।’
সূত্র : মানবজমিন

আরও পড়ুন