নড়াইলে করোনা প্রতিরোধে নানা উদ্যোগ

আপডেট: 01:48:36 25/03/2020



img
img

মৌসুমী নিলু, নড়াইল : নড়াইল-২ আসনের সংসদ সদস্য মাশরাফি বিন মোর্ত্তুজা দেশবাসীকে করোনা সম্পর্কে সচেতন হতে ভিডিও বার্তা দিয়েছেন।
এদিকে, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি সৌমেন বোস জানান, নড়াইল-২ আসনের এমপি তার নিজস্ব তহবিল থেকে প্রাথমিক পর্যায়ে চিকিৎসক, নার্স এবং গণমাধ্যমকর্মীদের জন্য ২০০ পিপিই-এর ব্যবস্থা করেছেন। শিগগির আরো ৩০০ পিপিই-এর ব্যবস্থা হচ্ছে। এছাড়া হতদরিদ্রদের খাদ্য সহায়তা দেওয়ার জন্য তার প্রস্তুতি রয়েছে।
নড়াইলে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান, জনপ্রতিনিধি, সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোট এবং বেসরকারি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন করোনাভাইরাস প্রতিরোধে বিভিন্ন কার্যক্রম শুরু করেছে। করোনাভাইরাস প্রতিরোধে চিকিৎসকদের সরঞ্জাম, জনসাধারণকে হ্যান্ড স্যানিটাইজার ও মাস্ক বিতরণ, প্রচারপত্র বিলি, মাইকিং, সচেতনতামূলক বিভিন্ন কার্যক্রম চলছে।
করোনাভাইরাস প্রতিরোধমূলক কার্যক্রমে জেলা প্রশাসক আনজুমান আরা, পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জসিম উদ্দিন, সিভিল সার্জন ডা. আব্দুল মোমেন গত ১২ মার্চ থেকে সচেতনতামূলক প্রচার-প্রচারণা শুরু করেন। এর পর থেকে করোনাভাইরাস প্রতিরোধে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান এবং সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠন ও ব্যক্তি এটি মোকাবেলায় তাদের নিজ নিজ অবস্থান থেকে কাজ শুরু করে।
নড়াইল পৌরসভা শহরের বিভিন্ন সড়ক ও বাড়ির আঙিনায় জীবাণুনাশক স্প্রে করেছে, এক হাজার মাস্কও বিতরণ করেছে।
জেলা সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোট নড়াইল পৌর এলাকা, লোহাগড়া এবং মাইজপাড়া এলাকায় কনোরাভাইরাস থেকে জনগণকে সচেতন করতে তিন দিনব্যাপী মাইকে প্রচার শুরু করেছে।
রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি কয়েকটি টিমের মাধ্যমে শহরের বিভিন্ন জায়গায় বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ এবং যাত্রীদের হ্যান্ডওয়াশ ও লিফলেট বিতরণ করছে।
নড়াইলে বিভিন্ন স্কুল-কলেজের ছাত্রদের নিয়ে গড়ে ওঠা তিনটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন চলো পাল্টাই, কাম ব্যাক সোসাইটি এবং নড়াইল ভলেন্টিয়ার্স নিজেদের অর্থে বিভিন্ন সেবামূলক কাজ করে যাচ্ছে।
গত কয়েকদিন ধরে স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন চলো পাল্টাই শহরের দরিদ্র জনগোষ্ঠীর মধ্যে ৪০০ মাস্ক, নিজেদের তৈরি এক হাজার ৫০পিচ স্যানিটাইজার এবং এক হাজার লিফলেট বিতরণ করেছে। এ সংগঠনের পরিচালক জাকারিয়া খান জানান, সংগঠনের সদস্যরা চাঁদা দিয়ে এ কাজে ব্যয় করছেন।
নড়াইল ভলেন্টিয়ার্স পিছিয়ে পড়া জনগোষ্ঠী, শহরের বিভিন্ন মসজিদ, গুরুত্বপূর্ণ এলাকায় নিজস্ব প্রযুক্তিতে তৈরি হ্যান্ডওয়াশ স্থাপন করেছে। এ সংগঠনের প্রধান উদ্যোক্তা সাদাত রহমান সাকিব বলেন, তিনি দেশীয় প্রযুক্তিতে এ ধরনের হ্যান্ডওয়াশ তৈরি এবং বিভিন্ন স্থানে স্থাপন করতে কালিয়া ও লোহাগড়ায় তার সহকর্মীদের সঙ্গে কথা বলছেন এবং পরামর্শ দিচ্ছেন।
কাম ব্যাক সোসাইটি সদর উপজেলার মাইজপাড়া ও নড়াইল শহরের রূপগঞ্জ এলাকায় শতাধিক যানবাহনে জীবাণুনাশক স্প্রে ছিটিয়েছে। তারা খারযুক্ত সাবান ও লিফলেট বিতরণ করেছে। এ সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা অচিন্ত্য আসিফ জানান, তাদের এ কাজ অব্যাহত থাকবে।
জেলার কালিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মনিরুল ইসলাম তার নিজস্ব ইউনিয়ন ইলিয়াছাবাদবাসীর মধ্যে নিজস্ব তহবিল থেকে চার হাজার মাস্ক বিতরণ করেছেন।
নড়াইল সদর হাসপাতালের আরএমও ডা. মশিউর রহমান রহমান বলেন, ‘শুনেছি নড়াইল-২ আসনের এমপি মাশরাফি বিন-মোর্ত্তজা চিকিৎসক ও নার্সদের জন্য ২০০ পিপিই পাঠাচ্ছেন।’
স্বাস্থ্য বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, জেলার তিন উপজেলায় বর্তমানে হোম কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন ২৯৮ জন। গত রোববার পর্যন্ত এই সংখ্যা ছিল ২৪৪।

আরও পড়ুন