পাইকগাছায় ফের বাঁধে ভাঙন, মানুষ আতঙ্কে

আপডেট: 06:04:20 01/06/2017



img
img

এস এম আলাউদ্দিন সোহাগ, পাইকগাছা (খুলনা) :    পাইকগাছায় ভদ্রা নদীর ভয়াবহ ভাঙনে ফের হুমকির মুখে পড়েছে দেলুটি ইউনিয়নের কালীনগর ওয়াপদার বেড়িবাঁধ।
গত বছর থেকে ভাঙন শুরু হলেও ঘূর্ণিঝড় মোরার প্রভাবে কয়েক দিনের প্রবল ভাঙনে ক্ষতিগ্রস্ত ওয়াপদার বাঁধ পরিদর্শন করেছেন পাউবো ও উপজেলা প্রশাসনের কর্মকর্তারা।
এর আগে থেকেই ইউনিয়ন পরিষদের সহযোগিতায় এলাকাবাসী স্বেচ্ছাশ্রমের ভিত্তিতে ক্ষতিগ্রস্ত বাঁধ মেরামতের চেষ্টা করে আসছেন।
বৃহস্পতিবার সকালে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ বাঁধ পরিদর্শন করে বিকল্প বেড়িবাঁধ নির্মাণের আশ্বাস দিয়েছেন। আর স্থানীয় প্রশাসন তাৎক্ষণিকভাবে তিন মেট্রিক টন খাদ্য সহায়তা প্রদান করেছে।
সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, উপজেলার দেলুটি ইউনিয়নের ২২ নম্বর পোল্ডারের কালীনগর ভদ্রা নদীর ওয়াপদার বাঁধে কয়েক দিন ধরে আবারো ভয়াবহ ভাঙন দেখা দিয়েছে। প্রায় আধা কিলোমিটার জুড়ে ভাঙন দেখা দেওয়ায় সংশ্লিষ্ট এলাকায় সহায়-সম্পদের ক্ষতির আশংকায় মানুষ আতংকিত হয়ে পড়েছেন। ভাঙনরোধে স্থানীয় জনগণ স্বেচ্ছাশ্রমে কাজ করছেন; যা যথেষ্ট নয়।
বিষয়টি জানার পর উপজেলা চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট স ম বাবর আলী, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ফকরুল হাসান, পাউবোর নির্বাহী প্রকৌশলী পীযূষকুমার কুণ্ডু ভাঙনকবলিত এলাকা পরিদর্শন করছেন।
স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান রিপনকুমার মণ্ডল জানিয়েছেন, গত কয়েকদিনের প্রবল ভাঙনে ইউনিয়নের কালীনগর ওয়াপদার বাঁধ হুমকির মুখে পড়েছে। যেকোন মুহূর্তে বাঁধটি পুরোপুরি নদীগর্ভে বিলীন হয়ে বিস্তীর্ণ এলাকা প্লাবিত হয়ে ব্যাপক ক্ষয়-ক্ষতির আশংকা করা হচ্ছে। ভাঙনরোধে ইতিমধ্যে ইউনিয়ন পরিষদের সহযোগিতায় এলাকাবাসী স্বেচ্ছাশ্রমের ভিত্তিতে বাঁধ মেরামতের চেষ্টা করছেন। তবে স্থানীয় এ উদ্যোগ ভাঙনরোধের জন্য যথেষ্ট নয়।
বৃহস্পতিবার সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ বাঁধ পরিদর্শন করে আগামী ২-১ দিনের মধ্যে ভাঙনকবলিত এলাকায় বিকল্প বেড়িবাঁধ নির্মাণের আশ্বাস দিয়েছেন। এলাকাবাসী টেকসই বাঁধের দাবি জানিয়েছেন।

আরও পড়ুন