প্রার্থী দিলু পাটোয়ারীসহ ১৭ জনের নামে মামলা

আপডেট: 07:05:53 18/11/2020



img

বাঘারপাড়া (যশোর) প্রতিনিধি : যশোরের বাঘারপাড়ায় উপজেলা উপনির্বাচনকে কেন্দ্র করে আওয়ামী লীগের দুইপক্ষের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনায় স্বতন্ত্র প্রার্থী দিলু পাটোয়ারীসহ ১৭ জনের নাম উল্লেখ করে মামলা দায়ের হয়েছে।
বুধবার (১৮ নভেম্বর) ইন্দ্রা গ্রামের আবু জাফর মোল্লার ছেলে নৌকা প্রতীকের কর্মী জাকির হোসেন বাঘারপাড়া থানায় মামলাটি করেন। পুলিশ অভিযোগ পেয়ে সাহেব ও পিকুল নামে দুইজনকে গ্রেফতারও করেছে; যারা মামলার এজাহারভুক্ত আসামি।
মামলার অন্য আসামিরা হলেন, দোহাকুলা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক গোলাম ছরোয়ার, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক দপ্তর সম্পাদক শচীন্দ্রনাথ বিশ্বাস, সাবেক সাংস্কৃতিক সম্পাদক মুন্সি বাহার উদ্দিন, ইন্দ্রা গ্রামের মৃত আজগর আলীর ছেলে ফুল মিয়া, আব্দুর রহিমের ছেলে সাহেব আলী, জলিল শিকদারের ছেলে ও ইউপি সদস্য তরিকুল ইসলাম, মোকাম মোল্লার ছেলে বাহারুল ইসলাম, সিরাজ মোল্লার ছেলে রফিকুল ইসলাম, মৃত ইসরাইল বিশ্বাসের ছেলে হায়দার আলী, হাবিবার তরফদারের ছেলে পিকুল, গহুর মোল্লার ছেলে আশিকুল, মৃত মাহাতাব মোল্লার ছেলে শুকুর আলী, মৃত খয়বার মোল্লার ছেলে রবিউল ইসলাম, মহিরন এলাকার মৃত আলেক মোল্লার ছেলে মিঠু, নারিকেলবাড়িয়া গ্রামের মৃত আনছার আলীর ছেলে ও যুবলীগ নেতা গিয়াস উদ্দিন হীরা এবং ধুপখালি গ্রামের ওহাব কাজীর ছেলে হুমায়ুন। এছাড়া আরো অজ্ঞাত নামা ১০-১২ জনকে আসামি করা হয়েছে।
মঙ্গলবার (১৭ নভেম্বর) রাত সোয়া নয়টার দিকে স্বতন্ত্র প্রার্থী দিলু পাটোয়ারী নারিকেলবাড়িয়া থেকে ইন্দ্রা বাজারে এসে তার কর্মী সমর্থকদের সঙ্গে কথা বলছিলেন। ওই সময় নৌকা প্রতীকের সমর্থকদের সঙ্গে তাদের সংঘর্ষ হয়। এ ঘটনায় অন্তত ১২-১৪ জন আহত হন।
নৌকা প্রতীকের সমর্থক জাকির হোসেন অভিযোগে উল্লেখ করেছেন, পরিকল্পিতভাবে তাদের ওপর দিলু পাটোয়ারীর সমর্থকেরা হামলা করে।
বাঘারপাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সৈয়দ আল মামুন বলেন, সংঘর্ষের ঘটনায় ১৭ জনকে আসামি করে একটি মামলা হয়েছে। এর মধ্যে সাহেব ও পিকুল নামে দুইজনকে গ্রেফতার করে বুধবার সকালে আদালতে পাঠানো হয়েছে। পরিস্থিতি পুলিশের নিয়ন্ত্রণে রয়েছে বলে জানান ওসি।
আগামী ১০ ডিসেম্বর বাঘারপাড়া উপজেলা চেয়ারম্যান পদে উপ-নির্বাচনে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। উপজেলা চেয়ারম্যান নাজমুল ইসলাম কাজল হবিগঞ্জে সড়ক দুর্ঘটনায় মারা গেলে পদটি শূন্য হয়।
এই নির্বাচনে আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীক পেয়েছেন নিহত উপজেলা চেয়ারম্যান কাজলের স্ত্রী ভিক্টোরিয়া পারভিন সাথী। ইউপি চেয়ারম্যান দিলু পাটোয়ারী স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এছাড়া নির্বাচনী লড়াইয়ে রয়েছেন বিএনপির প্রার্থী জামদিয়া ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান ও উপজেলা বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক শামছুর রহমান।

আরও পড়ুন