বাঘারপাড়ায় সব সাপ্তাহিক হাট বন্ধ

আপডেট: 07:42:08 26/03/2020



img
img

বাঘারপাড়া (যশোর) প্রতিনিধি : বাঘারপাড়ায় করোনাভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধে সতর্ক রয়েছে উপজেলা প্রশাসন। ওষুধ ও নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের দোকান ছাড়া অন্যান্য দোকান-পাট বন্ধ রয়েছে। একই সঙ্গে বন্ধ রয়েছে সরকারি-বেসরকারি অফিস ও যানবাহন চলাচল। প্রবাসীদের বাড়িতে টানানো হয়েছে লাল পতাকা। নির্দেশ অমান্য করায় ছয় প্রবাসীকে ঘরে তালাবদ্ধ করে রাখা হয়েছে।
এদিকে, জনসমাগম এড়াতে উপজেলার সব সাপ্তাহিক হাট বন্ধের ঘোষণা দিয়েছে উপজেলা প্রশাসন। বৃহস্পতিবার সকাল থেকেই জনসাধারণকে সচেতন করতে প্রচারণায় নেমেছে সেনাবাহিনীর টহলদল।
এদিন, সকালে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ফারজানা জান্নাত বন্দবিলা, জহুরপুর ও রায়পুর ইউনিয়নের বিদেশফেরতদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে তারা হোম কোয়ারেন্টাইন আছেন কিনা সেই খোঁজখবর নেন। প্রবাসীদের বাড়িতে লাল পতাকা টানানো আছে কিনা তাও ঘুরে ঘুরে দেখেন তিনি। এরপর বেলা ১২টার দিকে খাজুরা হাটে নিত্যপণ্যের মূল্য সহনীয় রাখতে অভিযান পরিচালনা করেন উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ফারজানা জান্নাত।
বন্দবিলা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সবদুল হোসেন খান তার ইউনিয়নে ‘২৯ জন প্রবাসী হোম কোয়ারেন্টাইনে আছেন’ জানিয়ে বলেন, ইতিমধ্যে ছয়জন প্রবাসী নির্দেশ অমান্য করায় তাদেরকে ঘরে তালাবদ্ধ করে রাখা হয়েছে। জনসমাগত এড়াতে প্রশাসনের নির্দেশে আজ (বৃহস্পতিবার) থেকে ইউনিয়নের খাজুরা, ভাটার আমতলা, পুলেরহাট ও বন্দবিলাসহ সবকয়টি হাট অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ রয়েছে বলেও জানান তিনি।
এদিন বেলা ১২টার দিকে খাজুরা হাটে নিত্যপণ্যের মূল্য সহনীয় রাখতে অভিযান চালানো হয়েছে। প্রথম দফার অভিযানে বাজারে বিক্রেতাদের পণ্যের মূল্য সহনীয় রাখার বিষয়ে সতর্ক করা হয়েছে। পাইকারি দামের সঙ্গে খুচরা দামের পার্থক্য বোঝার জন্য বিক্রেতাদের ক্রয় রশিদ সংরক্ষণ ও প্রতিটি দোকানে মূল্যতালিকা টানানোর নির্দেশ দেওয়া হয়।
জানতে চাইলে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ফারজানা জান্নাত বলেন, করোনাভাইরাস পরিস্থিতিকে পুঁজি করে কিছু অসাধু ব্যবসায়ী পণ্যের মূল্য বেশি নেওয়ার চেষ্টা করবে। সেজন্য সব ব্যবসায়ীকে দোকানে মূল্যতালিকা টানানোর নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। পরবর্তী অভিযানে যে সব দোকানে মূল্য তালিকা না টানানো থাকবে, তাদেরকে জরিমানাসহ আইনের আওতায় আনা হবে।
বাঘারপাড়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার তানিয়া আফরোজ বলেন, ‘আমাদের অভিযান অব্যাহত থাকবে। যারা আইন অমান্য করবেন- তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’

আরও পড়ুন