বাঘারপাড়া আওয়ামী লীগের নেতৃত্বে রণজিৎ-হাসান

আপডেট: 07:33:04 17/11/2019



img
img

বাঘারপাড়া (যশোর) প্রতিনিধি : আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রহমান বলেছেন, ‘আজ মায়ের কোলে থেকে আর জামাই আদরে যারা আওয়ামী লীগ করছেন, তারা আর পঁচাত্তর-পরবর্তী আওয়ামী লীগের নেতাদের মধ্যে পার্থক্য আছে। তাই ‘জামাইবাবুদের’ এ দলে জায়গা হবে না। যারা ত্যাগী নেতা, তাদেরকেই নেতৃত্বে আনতে হবে।’’
তিনি বলেন, শেখ হাসিনা ক্ষমতায় এসেছিলেন বলেই বঙ্গবন্ধুর খুনিদের ফাঁসি হয়েছে। আওয়ামী লীগকে আন্দোলনের ভয় দেখিয়ে কোনো লাভ নেই্। আন্দোলন করে খালেদার মুক্তি হবে না। খালেদার মুক্তির মীমাংসা আদালতেই হবে। আন্দোলনের নামে জ্বালাও-পোড়াও করলে তা প্রতিহত করা হবে।
রোববার যশোরের বাঘারপাড়া উপজেলা আওয়ামী লীগের ত্রিবার্ষিক সম্মেলন উপলক্ষে অনুষ্ঠিত সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি একথা বলেন।
এদিন বেলা দুইটায় বাঘারপাড়া মহিলা কলেজ মাঠে অনুষ্ঠিত সভায় সভাপতিত্ব করেন বাঘারপাড়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও স্থানীয় সংসদ সদস্য রনজিৎকুমার রায়।
সম্মেলনে আলোচনার ভিত্তিতে সংসদ সদস্য রনজিৎ রায়কে আবার সভাপতি ও হাসান আলীকে সাধারণ সম্পাদক হিসেবে বাঘারপাড়া উপজেলা কমিটির নতুন নেতৃত্ব ঘোষণা করা হয়।
সম্মেলনে প্রধান বক্তা খুলনা বিভাগের দায়িত্বপ্রাপ্ত কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ও সংসদ সদস্য আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপন বলেন, ‘দলের মধ্যে হাইব্রিড ঢুকে পড়েছে। তারা বিশৃংখলা সৃষ্টি করছে। এদেরকে বাড়তে দেওয়া যাবে না।’
তিনি বলেন, ‘বিএনপিকে আমরা নয়, ধ্বংস করেছে একজন বালক। সে হলো তারেক জিয়া।’
বিশেষ অতিথি কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য এসএম কামাল হোসেন বলেন, শেখ হাসিনা ক্ষমতায় থাকলেই দেশের উন্নয়ন হয়। গ্রামকে শহরে রূপান্তরিত করতে ৬৮ হাজার কোটি টাকা বরাদ্দ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। ২০৩০ সালের মধ্যে বাংলাদেশকে উচ্চ-মধ্যম আয়ের দেশে পরিণত করতে কাজ করে চলেছেন তিনি। দলীয় নেতা-কর্মীদের উদ্দেশে এসএম কামাল বলেন, ‘দলের মধ্যে বিভেদ সৃষ্টি করবেন না। দলের সিনিয়র নেতাদের সাথে আলাপ করে উপজেলা কমিটি গঠন করা হবে।’
অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি শহিদুল ইসলাম মিলন, সাধারণ সম্পাদক শাহীন চাকলাদার, আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতা পারভিন জামান কল্পনা, আব্দুল মজিদ, যশোর জেলা কমিটির যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট আলী রায়হান, অ্যাডভোকেট মনিরুল ইসলাম মনির, সাংগঠনিক সম্পাদক এসএম আফজাল, দপ্তর সম্পাদক মাহমুদ হাসান বিপু, নবনির্বাচিত যশোর সদর উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি মোহিতকুমার নাথ, সাধারণ সম্পাদক শাহারুল ইসলাম, বাঘারপাড়া উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান নাজমুল ইসলাম কাজল, নড়াইল জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা চেয়ারম্যান নিজাম উদ্দিন খান নিলু, বাঘারপাড়া উপজেলা যুগ্ম-সম্পাদক হাসান আলী ও অরুণ অধিকারী, সাংগঠনিক সম্পাদক নজরুল ইসলাম ও বিল্লাল হোসেন প্রমুখ।
অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির সদস্য সচিব অধ্যক্ষ আজগর আলী।
সমাবেশের আগে কেন্দ্রীয়, জেলা ও স্থানীয় নেতাদের সঙ্গে নিয়ে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলন করেন অনুষ্ঠানের উদ্বোধক জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি শহিদুল ইসলাম মিলন। সেই সময় বেলুন ও পায়রা ওড়ানো হয়।

আরও পড়ুন