বেরসিক পুলিশ ধরে আনলো খালা-ভাগ্নেকে

আপডেট: 03:57:48 01/06/2020



img

লোহাগড়া (নড়াইল) প্রতিনিধি : সংসার ছেড়ে ভাগ্নের হাত ধরে ভেগে গিয়েছিলেন সবিতা খানম (৩৫) নামে এক নারী। কিন্তু বেরসিক পুলিশ সোমবার সকালে ওই জুটিকে ধরে থানায় এনেছে।
এ ঘটনায় সবিতার স্বামী বাদী হয়ে থানায় মামলা দায়ের করেছেন।
এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার পাঁচুড়িয়া গ্রামের মজিবর খানের ছেলে ও লোহাগড়া ফিলিং স্টেশনের মালিক সৈয়দ বোরহান আলীর ভাগ্নে সবুজ খানের (৩৫) সঙ্গে শহরের কুন্দশী এলাকার প্রবাসী বদরুদ্দোজা পান্নুর স্ত্রী এক সন্তানের জননী সবিতা খানমের (৩২) পরকীয়া সম্পর্ক গড়ে ওঠে। পান্নু বিষয়টি জানতে পেরে বিদেশ থেকে ফিরে আসেন এবং এ নিয়ে স্ত্রীর সঙ্গে তার মনোমালিন্য হয়। এরপর স্ত্রী সবিতা খানম গত রোববার সন্ধ্যায় স্বামীর সংসার ছেড়ে ভাগ্নে সবুজের সঙ্গে ভেগে যান।
অভিযোগ পেয়ে লোহাগড়া থানার এসআই আতিকুজ্জামনের নেতৃত্বে একদল পুলিশ অভিযান চালিয়ে শহরের লোহাগড়া ফিলিং স্টেশন এলাকা থেকে ওই জুটিকে আটক করে। এ ঘটনায় সবিতার স্বামী বদরুদ্দোজা পান্নু সোমবার দুপুরে লোহাগড়া থানায় মামলা করেছেন।
সবুজ খান লোহাগড়া ফিলিং স্টেশনে ম্যানেজার হিসেবে কর্মরত রয়েছেন।
লোহাগড়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) সৈয়দ আশিকুর রহমান জানান, আটককৃতদের আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।

আরও পড়ুন