বোনের জিম্মায় দুই সন্তানকে রেখে আত্মাহুতি

আপডেট: 04:45:35 30/11/2020



img

মণিরামপুর (যশোর) প্রতিনিধি : মণিরামপুরে আসাদুল ইসলাম (৩৮) নামে এক ট্রাকচালকের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার হয়েছে।
সোমবার (৩০ নভেম্বর) ভোর ছয়টার দিকে উপজেলার হরিহরনগর গ্রামে ঘটনাটি ঘটে।
আসাদুল ওই গ্রামের মৃত ছায়েদ আলীর ছেলে।
ট্রাকচালকের আত্মাহুতির প্রকৃত কারণ জানা যায়নি। দেনার দায়ে কিংবা স্ত্রীর সঙ্গে অভিমান করে তিনি আত্মহত্যা করেছেন বলে ধারণা স্বজনদের।
স্থানীয় ইউপি সদস্য আব্দুল মান্নান জানান, আসাদুল ঝিকরগাছা উপজেলার গদখালী নবীনগরে স্ত্রী ও দুই সন্তানকে নিয়ে থাকতেন। তিনি নিজের ট্রাক চালাতেন। আসাদুলের মা ও বোন থাকেন মণিরামপুরের হরিহরনগর গ্রামে। এখানে পাশেই তার মামার বাড়ি। রোববার (২৯ নভেম্বর) বিকেলে স্ত্রীকে গদখালী ভাড়া বাড়িতে রেখে নিজের ট্রাক চালিয়ে আসাদুল দুই সন্তানকে নিয়ে হরিহরনগরে মা-বোনের কাছে আসেন। এরপর বোন শেফালী খাতুনের জিম্মায় দুই সন্তানকে ( মেয়ে ও প্রতিবন্ধী ছেলে) দেন। বোনকে সন্তানদের দেখভালের দায়িত্ব দিয়ে সেখান থেকে বেরিয়ে যান আসাদুল। এরপর রাতে আর বাড়ি ফেরেননি। পরে সোমবার ভোরে স্বজনরা তার ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেন। বোনের বাড়ির পাশে ট্রাক রেখে পুকুর পাড়ে কাঁঠালগাছের রশি জড়িয়ে গলায় ফাঁস দেন তিনি।
মেম্বার আব্দুল মান্নান বলেন, আসাদুলের স্বজনদের ধারণা, স্ত্রীর ওপর অভিমান করে তিনি আত্মহত্যা করেছেন।
তবে স্ত্রী নাছিমা খাতুন দাবি করছেন, স্বামীর সঙ্গে তার কোনো ঝগড়া হয়নি। আসাদুল বেশ টাকা ঋণি ছিলেন।
ঝাঁপা ক্যাম্প পুলিশের ইনচার্জ এসআই ওয়াসিম আকরাম বলেন, ট্রাকচালকের মৃত্যুর ঘটনায় তার মামা আকছেদ আলী বাদী হয়ে মণিরামপুর থানায় অপমৃত্যু মামলা করেছেন। আত্মহত্যার প্রকৃত কারণ জানা যায়নি। ময়নাতদন্তের জন্য লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠানো হয়েছে।

আরও পড়ুন