মণিরামপুরে নাজমাকে অবাঞ্ছিত ঘোষণা আওয়ামী লীগের

আপডেট: 03:52:08 16/10/2020



img
img
img

স্টাফ রিপোর্টার : স্থানীয় সরকার প্রতিমন্ত্রী স্বপন ভট্টাচার্য্যের বিরুদ্ধে 'ষড়যন্ত্র' ও 'অপপ্রচারের' প্রতিবাদে সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ ও সংবাদ সম্মেলন করেছে যশোরের মণিরামপুর উপজেলা আওয়ামী লীগ।
আজ শুক্রবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে আওয়ামী লীগ কার্যালয়ের সামনে যশোর-সাতক্ষীরা আঞ্চলিক মহাসড়ক অবরোধ করে এ বিক্ষোভ প্রদর্শন করেন নেতাকর্মীরা। পরে সংবাদ সম্মেলন করে ‍'অপপ্রচারকারী' উপজেলা চেয়ারম্যানকে অবাঞ্ছিত ঘোষণা করা হয়।
মণিরামপুর উপজেলায় সরকারি উন্নয়ন কার্যক্রমকে ঘিরে প্রতিমন্ত্রী স্বপন ভট্টাচার্য্য ও তার ভাগ্নে উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান উত্তম চক্রবর্তী বাচ্চুর বিরুদ্ধে প্রভাব খাটানো এবং অনিয়মের অভিযোগ তোলেন উপজেলা চেয়ারম্যান নাজমা খানম। এনিয়ে তিনি কয়েকবার সংবাদ সম্মেলনও করেছেন। তার বক্তব্যকে 'ষড়যন্ত্র' ও 'অপপ্রচার' দাবি করে আজ বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করেন উপজেলা আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা।
বেলা ১১টার দিকে নেতাকর্মীরা দলীয় কার্যালয়ের সামনে যশোর-সাতক্ষীরা আঞ্চলিক মহাসড়ক অবরোধ করে এ বিক্ষোভ প্রদর্শন করেন নেতাকর্মীরা।
ঘণ্টাব্যাপী বিক্ষোভকালে ব্যস্ততম সড়কটির দু’পাশে গাড়ির দীর্ঘ লাইন পড়ে যায়।
বিক্ষোভ শেষে দলীয় কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অধ্যক্ষ কাজী মাহামুদুল হাসান দাবি করেন, উপজেলা চেয়ারম্যান নাজমা খাতুনের অনিয়ম-দুর্নীতির বিরুদ্ধে কথা বলায় তিনি প্রতিমন্ত্রীর বিরুদ্ধে অপপ্রচারে লিপ্ত হয়েছেন। নিঃশর্ত ক্ষমা না চাওয়া পর্যন্ত এই সময় তাকে অবাঞ্ছিত ঘোষণা করেন দলের সভাপতি।
তিনি বলেন, নাজমা খানম সম্পূর্ণ উদ্দেশ্যমূলকভাবে ব্যক্তিগত আক্রোশের কারণে ভিত্তিহীন তথ্য উপস্থাপন করে প্রতিমন্ত্রী স্বপন ভট্টাচার্য্য ও দলের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন করেছেন। প্রত্যন্ত গ্রাম এলাকার একটি স্কুলের কিছু গাছ টেন্ডার বিষয়ে তিনি যে বক্তব্য সাংবাদিকদের দিয়েছেন, তা সত্য নয়।  তাকে হেনস্থার বিষয়ে যে অভিযোগ করা হয়েছে- সেটিও সত্য নয়। তার বক্তব্য হীন মানসিকতার বহির্প্রকাশ।
সংবাদ সম্মেলনে অন্যদের মধ্যে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক প্রভাষক মো. ফারুক হোসেন, সদস্য আবুল কালাম আজাদসহ মণিরামপুর উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকরা উপস্থিত ছিলেন।   
গত ১৪ অক্টোবর প্রেসক্লাব যশোরে সংবাদ সম্মেলন করে মণিরামপুর উপজেলা চেয়ারম্যান চেয়ারম্যান নাজমা খানম তার নিজেরসহ পরিবারের জীবনাশঙ্কার কথা তুলে ধরে বক্তব্য উপস্থাপন করেন।  তিনি অভিযোগ করেন, স্থানীয় সরকার প্রতিমন্ত্রী ও তার ভাগ্নের অন্যায় কাজের প্রতিবাদ করতে গিয়ে তিনি ও তার পরিবারের লোকজন জীবনাশঙ্কায় রয়েছেন

আরও পড়ুন