মণিরামপুরে ভাইপোর হাতে চাচা খুন

আপডেট: 09:57:35 18/09/2020



img
img

মণিরামপুর (যশোর) প্রতিনিধি : মণিরামপুরে ভাইপোর হামলায় চাচা অবসরপ্রাপ্ত মাদরাসাশিক্ষক আব্দুস সাত্তার গোলদার (৬৫) নিহত হয়েছেন। পারিবারিক জমিজমার বিরোধ মেটাতে গিয়ে তিনি খুন হন।
শুক্রবার বিকেলে উপজেলার গোবিন্দপুর গ্রামে এই ঘটনা ঘটে।
নিহত আব্দুস সাত্তার ওই গ্রামের মৃত ইব্রাহিম গোলদারের ছেলে। আর ঘাতক ভাইপো পারভেজ হোসেন নিহতের সেজ ভাই আব্দুল হামিদের ছেলে। সে পুলিশ হেফাজতে মণিরামপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি আছে। চাচার ওপর হামলার পর উপস্থিতরা তাকে পিটুনি দেয়। এর ফলে সে আহত হয়। তাকে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় গ্রেফতার করেছে পুলিশ।
পুলিশ ও নিহতের স্বজনরা জানান, শুক্রবার সকালে ও বিকেলে দুই দফা জমিজমা নিয়ে পারিবারিকভাবে আব্দুস সাত্তার ও তার অন্য ভাইদের বসাবসি হয়। বিকেলে শালিসের শেষ পর্যায়ে আব্দুস সাত্তারের সঙ্গে তার সেজ ভাই আব্দুল হামিদের কথাকাটাকাটি হয়। একপর্যায়ে আব্দুল হামিদ, তার তিন ছেলে ইসমাইল, পারভেজ ও সোয়াইব এবং তার ছোট ভাই রোকনুজ্জামান আব্দুস সাত্তারের ওপর হামলা চালায়। এসময় আব্দুস সাত্তরের বুকে লাথি ও কিল-ঘুষি মারে পারভেজ। এতে আব্দুস সাত্তার জ্ঞান হারিয়ে ফেলেন। পরে স্বজনরা তাকে উদ্ধার করে মণিরামপুর হাসপাতালে নেন। জরুরি বিভাগের চিকিৎসক সন্ধ্যায় তাকে মৃত ঘোষণা করেন।
জরুরি বিভাগের চিকিৎসক আব্দুল্লাহ আল মামুন জুয়েল বলেন, হাসপাতালে আনার আগেই আব্দুস সাত্তারের মৃত্যু হয়েছে।
মণিরামপুর থানার এসআই কাজী নাজমুস সাকিব বলেন, লাশ উদ্ধার করে হেফাজতে নেওয়া হয়েছে। এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে। পারভেজ পুলিশ হেফাজতে হাসপাতালে ভর্তি আছে।

আরও পড়ুন