মণিরামপুরে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ যুবক নিহত

আপডেট: 02:02:52 31/05/2020



img
img

আনোয়ার হোসেন, মণিরামপুর (যশোর) : মণিরামপুরে র‌্যাবের সঙ্গে কথিত বন্দুকযুদ্ধে রুবেল হোসেন শাওন (২২) নামে এক যুবক নিহত হয়েছেন।
শনিবার (৩০ মে) ভোররাতে উপজেলার রাজগঞ্জ এলাকার রামপুর মাঠে এঘটনা ঘটে।
র‌্যাব ঘটনাস্থল থেকে একটি বিদেশি পিস্তল, এক রাউন্ড গুলি ও ৬৪ বোতল ফেনসিডিল উদ্ধারের দাবি করেছে।
নিহত শাওন অভয়নগরের বুইকারা এলাকার বাচ্চু হাওলাদারের ছেলে। তিনি চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী বলে দাবি আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর। তবে, শাওনের নামে কোন থানায় কয়টি মামলা আছে তা জানা যায়নি।
বন্দুকযুদ্ধের ঘটনায় মণিরামপুর থানায় তিনটি মামলা করেছে র‌্যাব। পুলিশ লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠিয়েছে।
মণিরামপুর থানার সেকেন্ড অফিসার এসআই দেবাশীষ বিশ্বাস এজাহারের বরাত দিয়ে জানান, শনিবার রাতে র‌্যাব জানতে পারে মণিরামপুরের রাজগঞ্জ এলাকার রামপুর মাঠে মাদক বিকিকিনি চলছে। এই খবরের ভিত্তিতে রাত সাড়ে তিনটার দিকে র‌্যাব-৬ খুলনার স্পেশাল কোম্পানির একটি দল ঘটনাস্থলে যায়। সেই সময় মাদক ব্যবসায়ীরা র‌্যাবকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে। আত্মরক্ষার জন্য র‌্যাবও পাল্টা গুলি ছোড়ে। একপর্যায়ে মাদক ব্যবসায়ীরা হটে গেলে র‌্যাব ঘটনাস্থলে একজনকে পড়ে থাকতে দেখে। উদ্ধার করে মণিরামপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আনলে চিকিৎসকরা ওই যুবককে মৃত ঘোষণা করেন।
মণিরামপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. অনুপ বসু বলেন, শনিবার ভোর চারটা ৫০ মিনিটে র‌্যাব এক যুবককে হাসপাতালে নিয়ে আসে। হাসপাতালে আনার আগেই ওই যুবক মারা যান। নিহত যুবকের বুক, পিঠ ও হাতে ৪-৫টি গুলির ক্ষত চিহ্ন রয়েছে।
মণিরামপুর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) শিকদার মতিয়ার রহমান বলেন, র‌্যাবের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে শাওন নামে এক মাদক ব্যবসায়ীর মৃত্যু হয়েছে। এই ঘটনায় র‌্যাব-৬ খুলনা লবণচরা স্পেশাল কোম্পানির পুলিশ পরিদর্শক রমজান আলী বাদী হয়ে মণিরামপুর থানায় পৃথক তিনটি মামলা করেছেন। পুলিশ লাশ উদ্ধার করে যশোর জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠিয়েছে।

আরও পড়ুন