মহেশপুরে বিষ প্রয়োগে মাছ নিধন

আপডেট: 07:07:10 04/11/2019



img

মহেশপুর (ঝিনাইদহ) প্রতিনিধি : পুকুরে মাছের পোনা ছাড়া হয়েছে। তাই পুকুরের পানিতে প্রতিবেশীর হাঁস নামতে না দেওয়া হয়। এই ক্ষোভে রাতের অন্ধকারে পুকুরে বিষ দিয়ে দুই লাখ টাকার মাছ মেরে ফেলা হয়েছে। শুধু মাছই না পুকুর পাড়ে দেখা গেছে ব্যাঙ ও সাপ মরে পড়ে রয়েছে। আর মাছ মরে সারা পুকুরে ভেসে রয়েছে।
এ ঘটনাটি ঝিনাইদহের মহেশপুর উপজেলার নাটিমা পূর্বপাড়ার হুমায়ন মিয়ার পুকুরে।
এলাকাবাসী জানান, নাটিমা বাজারের চাতাল ব্যবসায়ী হুমায়ন মিয়ার সাড়ে তিন বিঘার পুকুরটি কয়েক দিন হলো হাবাসপুর গ্রামের বাবুল নামের এক ব্যক্তি লিজ নিয়েছে। বাবুল মিয়া রোববার প্রায় দুই লাখ টাকার মাছের পোনা ছেড়েছে। পুকুরের পানিতে হাঁস নামতে দেবেন না বলে বাবুল মিয়া পুকুরের চার পাশে নেটজাল দিয়ে ঘিরে দিয়েছেন।
প্রতিবেশীরা জানান, পুকুরের পানিতে হাঁস নামাতে নিষেধ করায় পুকুর পাড়ের সলেমান ওরফে সলেমান কানার সঙ্গে বাবুল মিয়ার কথাকাটাকাটিও হয়েছে রোববার বিকেলে। পরে রাতের কোনো এক সময় পুকুরে বিষ দিয়ে মাছগুলো মেরে ফেলা হয়েছে।
বাবুল মিয়া বলেন, ‘রোববার সকালে যশোরের চাঁচড়া এলাকা থেকে সাড়ে তিন লাখ কই মাছের পোনা কিনে ছেড়েছি মাত্র। আমি পুকুর পাড়ের সবাইকেই পুকুরের পানিতে তাদের হাঁস নামাতে নিষেধ করেছিলাম। কিন্তু পুকুরে হাঁস নামাতে নিষেধ করায় সলেমান কানা, তার ছেলে আব্দুস সামাদ, সলেমানের স্ত্রী রহিমা খাতুনের সাথে কথাকাটাকাটি হয়।’
তিনি আরো জানান, তারা এখানে মাছ চাষ করতে দেবেন না বলেও হুমকিও দেন।
উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা আলমগীর হোসেন জানান, নাটিমায় বাবুল মিয়ার লিজ নেওয়া পুকুরে কে বা কারা বিষ দিয়ে পুকুরের মাছের পোনাগুলো মেরে ফেলা হয়েছে বলে শুনেছি।
এঘটনায় থানায় মামলার প্রস্তিুতি চলছে বলে পুলিশ সূত্রে জানা গেছে।