যবিপ্রবি ল্যাবে আজ ছয় জেলার ১০৯ নমুনা পজেটিভ

আপডেট: 04:54:38 24/06/2020



img

যশোর প্রতিনিধি : যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় জেনোম সেন্টারে আজই প্রথম একশয়ের ওপর নমুনায় করোনাভাইরাস শনাক্ত হলো। এর মধ্যে যশোরেরই রয়েছে ৪৯ নমুনা।
এদিন যশোরের পজেটিভ হওয়া ৪৯ নমুনার মধ্যে ৪৬টিই নতুন। অর্থ্যাৎ মঙ্গলবারের পরীক্ষায় এই জেলায় নতুন করে ৪৬ করোনা রোগী শনাক্ত হলেন; যা নতুন রেকর্ড সৃষ্টি করেছে। একই সঙ্গে যশোরে করোনায় আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত ব্যক্তির সংখ্যা চারশ' ছাড়িয়ে গেল।
যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (যবিপ্রবি) জেনোম সেন্টারের পরীক্ষণ দলের সদস্য ড. নিগার সুলতানা জানান, মঙ্গলবার তারা মোট ৩৪৮ জনের নমুনা পরীক্ষা করেন। এর মধ্যে ১০৯ জনের পজেটিভ এবং ২৩৯ জনের নেগেটিভ ফলাফল এসেছে। আজ বুধবার সকালে এই ফল সংশ্লিষ্ট জেলার সিভিল সার্জনদের জানিয়ে দেওয়া হয়েছে।
প্রকাশিত ফলাফলে দেখা যায়, যশোরের ১৪১ জনের নমুনা পরীক্ষা করে এদিন ৪৯ জনের শরীরে করোনা ভাইরাসের অস্তিত্ব পাওয়া যায়। এর মধ্যে নতুন নমুনা ৪৬টি; বাকি তিনটি ফলোআপ।
এর আগে মঙ্গলবার রাতে খুলনা মেডিকেল কলেজ থেকে আসা রিপোর্টে যশোর জেলার একটি নমুনাকে পজেটিভ বলে শনাক্ত করা হয়। সেটিও ছিল নতুন নমুনা। ফলে জেলায় গেল ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত হিসেবে শনাক্তের মোট সংখ্যা ৪৭-এ দাঁড়ালো।
এছাড়া এদিন যবিপ্রবি জেনোম সেন্টারে মাগুরার ২১ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ছয়জনের, নড়াইলের ১১ জনের নমুনা পরীক্ষা করে দুইজনের, ঝিনাইদহের ৪৯ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ১৭ জনের, বাগেরহাটের ১০৩ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ২৯ জনের এবং সাতক্ষীরার ২৩ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ছয়জনের নমুনা পজেটিভ পাওয়া যায়।
পরীক্ষা সংক্রান্ত তথ্যাদি সকালেই সংশ্লিষ্ট জেলার সিভিল সার্জন অফিসে পাঠানো হয়েছে বলে জানিয়েছেন ড. শিরিন নিগার।
যশোরের সিভিল সার্জন ডা. শেখ আবু শাহীন বলেন, গেল ২৪ ঘণ্টায় যবিপ্রবি জেনোম সেন্টারে নতুন শনাক্ত ৪৬ জন ছাড়াও খুলনা মেডিকেল কলেজের ল্যাবে আরেকজনের শরীরে করোনা শনাক্ত হয়েছে। এনিয়ে এই জেলায় আক্রান্ত বলে শনাক্ত ব্যক্তির সংখ্যা হলো ৪১০।
তিনি জানান, আক্রান্তদের মধ্যে মারা গেছেন দুইজন। সুস্থ হয়েছেন ১৬০ জন।
নতুন আক্রান্ত ব্যক্তিদের অবস্থান শনাক্ত করে বাড়ি লকডাউনসহ দরকারি ব্যবস্থা নেবে স্ব-স্ব এলাকার প্রশাসন।

আরও পড়ুন