যুক্তরাষ্ট্রে সন্ত্রাসী হামলার আশঙ্কায় কড়া সতর্কতা

আপডেট: 01:10:02 28/01/2021



img

সুবর্ণভূমি ডেস্ক : প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের ফলাফলে ক্ষুব্ধরা স্থানীয় পর্যায়ে সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড চালাতে পারে- এমন আশঙ্কায় ‘তীব্র হুমকির’ সতর্কতা জারি করেছে যুক্তরাষ্ট্রের নিরাপত্তা বিভাগ। ৬ জানুয়ারি ক্যাপিটল ভবনে ট্রাম্প সমর্থকদের হামলার পর ডিপার্টমেন্ট অব হোমল্যান্ড সিকিউরিটি বুধবার (২৭ জানুয়ারি) এমন সতর্কতার কথা জানায়। গত এক বছরের মধ্যে হোমল্যান্ড সিকিউরিটি বিভাগ থেকে এই প্রথম কোনো সতর্কতা জারি করা হলো।
হোমল্যান্ড সিকিউরিটির বরাত দিয়ে ব্রিটিশ গণমাধ্যম বিবিসির এক প্রতিবেদনে বলা হয়, যদিও কোনো নির্দিষ্ট ষড়যন্ত্রের তথ্য পায়নি হোমল্যান্ড সিকিউরিটি, তবুও যারা ট্রাম্পের বিদায়ে হতাশ হয়েছে তাদের কাছ থেকে হুমকির সতর্কতা জানানো হয়।
এতে বলা হয়, ‘কিছু স্থানীয় চরমপন্থি ক্যাপিটল ভবনের ঘটনার মাধ্যমে নির্বাচিত কর্মকর্তা ও সরকারি সম্পত্তির প্রতি হামলা চালাতে উৎসাহিত হয়ে থাকতে পারে। আদর্শগতভাবে উদ্বুদ্ধ চরমপন্থীরা সরকারের কর্মকাণ্ড ও প্রেসিডেন্ট পদের পরিবর্তন করতে সহিংসতা চালাতে পারে।’
কংগ্রেসে জো বাইডেনকে প্রেসিডেন্ট হিসেবে আনুষ্ঠানিক অনুমোদন দেওয়ার সময় ক্যাপিটল ভবনে হামলা চালায় ট্রাম্প সমর্থকরা। এর আগে ডোনাল্ড ট্রাম্প তার সমর্থকদের উদ্দেশে বারবার দাবি করতে থাকেন যে, প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে জালিয়াতির মাধ্যমে বাইডেন জয় পেয়েছেন।
এরপর ট্রাম্প সমর্থকরা ক্যাপিটল ভবনের দিকে এগিয়ে যায়, নিরাপত্তাকর্মীদের সঙ্গে সংঘর্ষ বাধায় এবং ভবনে ঢুকে ভাঙচুর ও লুটপাট চালায়। এ ঘটনায় একজন পুলিশ কর্মকর্তাসহ মোট পাঁচজন নিহত হন।
নজিরবিহীন এই হামলার ঘটনায় মার্কিন জনগণ স্তব্ধ হয়ে পড়ে। হামলায় জড়িতদের গ্রেফতারে দ্রুত তৎপর হয়ে ওঠে নিরাপত্তা বাহিনী। প্রসিকিউটররা জানান তারা এখন পর্যন্ত হামলার সঙ্গে জড়িত সন্দেহে সম্ভাব্য ৪০০ ব্যক্তিকে শনাক্ত করেছেন ও ১৩৫ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

আরও পড়ুন