শুরু হলো দীপনের ‘অপারেশন সুন্দরবন’

আপডেট: 08:04:26 20/12/2019



img
img

আব্দুস সামাদ, সাতক্ষীরা : টানা ২০ মাস হোমওয়ার্ক করার পর আজ সরাসরি সুন্দরবন অপারেশনে নামলেন নির্মাতা দীপঙ্কর দীপন।
শুক্রবার সকালে সুন্দরবন থেকে দীপন বললেন, ‘২০১৮ সালের এপ্রিল মাসে ছবিটির প্রাথমিক কাজ শুরু করেছি। এরমধ্যে অনেক জটিলতা পার করতে হয়েছে আমাকে। অনেক শঙ্কা পেরিয়ে সেটি বাস্তবায়নের পথে। আনুষ্ঠানিকভাবে শুটিং শুরু করেছি আমরা। সবার দোয়া ও শুভ কামনা চাই।’
‘ঢাকা অ্যাটাক’ ঝড়ের পর নতুন অপারেশন শুরু করতে লম্বা সময় নিলেন এই নির্মাতা। মাঝে একাধিক ছবির উদ্যোগ নিলেও শেষ পর্যন্ত আনুষ্ঠানিকভাবে মাঠে গড়ালো বড় ক্যানভাসের চলচ্চিত্র ‘অপারেশন সুন্দরবন’।
দীপন জানান, শুক্রবার (২০ ডিসেম্বর) সকাল থেকে সাতক্ষীরা জেলার বুড়িগোয়ালিনী এলাকায় শুরু হলো সিনেমাটির প্রথম লটের শুটিং। অভিনয়শিল্পী হিসেবে যাতে অংশ নিলেন মনোজ প্রামাণিক ও সামিনা বাশার। শনিবার থেকে এই ইউনিটে যুক্ত হবেন রিয়াজ, নুসরাত ফারিয়া, সিয়াম, রোশান ও তাসকিন।
দীপংকর দীপন বলেন, ‘শুক্রবার থেকে টানা ১৬ দিন শুটিং করবো। এর মধ্যে ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত টানা ১১ দিন পুরো ইউনিট থাকবে সুন্দরবনের গহিনে। এর পর আমরা খুলনা এলাকায় শুটিং করবো। ৫ জানুয়ারি পর্যন্ত সেখানে শুটিং চলবে। এরপর ফিরে আসবো ঢাকায়। পরিকল্পনা করবো পরের লটের।’
দীপন জানান, সিনেমার কাস্টিং নিয়ে আরো কিছু সারপ্রাইজ আছে। বিশেষ কয়েকজন তারকার নাম ঘোষণা করা হবে শিগগিরই।
অন্যদিকে শুটিং শুরুর প্রথম দিন থেকেই ইউনিটের বিষয়ে রয়েছে সর্বোচ্চ সতর্কতা।
দীপন জানান, তারা চান না, শুটিং শেষ হওয়ার আগে শিল্পীদের কোনো লুক কিংবা ইউনিটের ছবি প্রকাশ হোক।
এদিকে শুটিং শুরুর আগেই সিনেমাটির শিল্পীদের নিয়ে মহড়ার আয়োজন করা হয়। এতে অভিনয়শিল্পীদের বিশেষ ট্রেনিং দিয়েছেন দীপংকর দীপনের সঙ্গে র‌্যাব কর্মকর্তারাও। শুধু তাই নয়, শুটিং চলাকালীন থাকছে র‌্যাব কর্মকর্তাদের আন্তরিক উপস্থিতি। প্রথম কারণ শিল্পী-কুশলীদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করা; দ্বিতীয় কারণ ছবিটির বিভিন্ন দৃশ্যে সহযোগিতা করে বাস্তব করে তোলা ক্যামেরার ফ্রেমে।
বিশ্বের বৃহত্তম ম্যানগ্রোভ বন সুন্দরবনকে জলদস্যুমুক্ত করার অভিযানের গল্প নিয়ে নির্মিত হচ্ছে ‘অপারেশন সুন্দরবন’। র‌্যাব ওয়েলফেয়ার কোঅপারেটিভ সোসাইটি লিমিটেডের অর্থায়নে চলচ্চিত্রটি প্রযোজনা করছে থ্রি হুইলারস লিমিটেড।
সিনেমাটিতে অভিনয় করছেন সিয়াম আহমেদ, নুসরাত ফারিয়া, জিয়াউল হক রোশান, তাসকিন রহমান, রিয়াজ, সামিনা বাশার, মনোজ প্রামাণিক, দীপু ইমাম, শেখ এহসানুর রহমানসহ অনেকে।
নির্মাতা জানান, ২০২০ সালের ঈদুল আজহায় এটি মুক্তির পরিকল্পনা নিয়েই এগুচ্ছেন তারা।

আরও পড়ুন