সম্পত্তির লোভেই মাকে খুন!

আপডেট: 01:11:30 24/02/2021



img

কুষ্টিয়া প্রতিনিধি : মিরপুরে মাকে হত্যার পর বস্তাবন্দি লাশ পানিতে ফেলে দেওয়ার ৩৪ দিন পর উদ্ধার করেছে কুষ্টিয়া জেলা গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)। সম্পত্তির লোভে এই মর্মান্তিক ঘটনা বলে জানিয়েছে পুলিশ।
বুধবার বেলা ১১টার দিকে কুষ্টিয়ার পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে এক প্রেস ব্রিফিংয়ে এ তথ্য জানানো হয়।
খুন হওয়া ওই মায়ের নাম মমতাজ বেগম। বাড়ি মিরপুর উপজেলার পোড়াদহ ইউনিয়নের দক্ষিণ কাটদহ এলাকায়। এ ঘটনায় ঘাতক ছেলেসহ ঘটনায় জড়িত অপর দুইজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।
ব্রিফিংয়ে পুলিশ জানায়, মমতাজ বেগমের স্বামী মারা যাওয়ার পর তিনি একমাত্র ছেলে মুন্না বাবুর সঙ্গে বসবাস করতেন। তার তিন মেয়ের বিয়ে হয়ে গেছে। গত ২০ জানুয়ারি ছেলে মুন্না তার বন্ধু রাবিব ও চাচা আব্দুল কাদের মিলে মমতাজকে হত্যা করে লাশ বস্তাবন্দি করে পুকুরে ফেলে দেয়। পরে ২১ জানুয়ারি ছেলে মুন্না বাবু মিরপুর থানায় তার মাকে 'কে বা কারা অপহরণ করেছে' মর্মে জিডি করেন। কেবল তাই নয়, এরপর মুন্না তার বন্ধু রাব্বিকে অপহরণকারী সাজিয়ে তার দুলাভাইয়ের কাছে ফোন করিয়ে পাঁচ লাখ টাকা দাবি করান। মায়ের সম্পত্তির লোভেই এই হত্যাকাণ্ড বলে পুলিশ প্রাথমিকভাবে ধারণা করছে।

আরও পড়ুন