সাইয়েমা কাণ্ড : মণিরামপুরে সাইট হ্যাকের ঘটনায় মামলা

আপডেট: 09:13:35 29/03/2020



img

মণিরামপুর (যশোর) প্রতিনিধি : এসিল্যান্ড কর্তৃক কয়েক বৃদ্ধকে কান ধরিয়ে ওসবস করানোর প্রেক্ষাপটে মণিরামপুর উপজেলা প্রশাসনের ওয়েবসাইট হ্যাক হয়। হ্যাক হওয়া সাইটে বহুল সমালোচিত ছবিটি সেঁটে দেয় হ্যাকাররা।
এই ঘটনায় উপজেলার সহকারী প্রোগ্রামার প্রহ্লাদ দেবনাথ বাদী হয়ে রোববার তথ্যপ্রযুক্তি আইনে মামলা করেছেন। তবে কারা সাইটটি হ্যাক করেছিল, এখনো তা জানতে পারেনি কর্তৃপক্ষ।
সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, গত শুক্রবার মণিরামপুরের সহকারী কমিশনার (ভূমি) ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনাকালে চার বৃদ্ধকে অবমাননাকর সাজা দেন। হতদরিদ্র বৃদ্ধদের কান ধরতে বাধ্য করে সেই দৃশ্য নিজের মোবাইল ফোনে ধারণও করেন এসিল্যান্ড সাইয়েমা হাসান।
এই ঘটনা সোশাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়ার পর দেশব্যাপী তোলপাড় হয়। পরদিন সকালেই সাইয়েমাকে মণিরামপুর থেকে প্রত্যাহার করে খুলনা বিভাগীয় কমিশনারের কার্যালয়ে ন্যস্ত করা হয়। তার বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগ তদন্তের দায়িত্ব দেওয়া হয় যশোরের জেলা প্রশাসককে।
এদিকে, ঘটনা চাউর হওয়ার পর ওই রাতেই মণিরামপুর উপজেলা প্রশাসনের সরকারি ওয়েবসাইট হ্যাক হয়। ওয়েবসাইটের ফ্রন্ট পেজের শীর্ষে আলোচিত সেই ছবি, যেখানে এক বৃদ্ধ কান ধরে দাঁড়িয়ে আছেন এবং এসিল্যান্ড সাইয়েমা সেই ছবি তুলছেন, তা সেঁটে দেওয়া হয়। রাত তিনটার দিকে অবশ্য ওয়েবসাইটটি মেরামত করা সম্ভব হয় বলে জানান সহকারী প্রোগ্রামার প্রহ্লাদ।
ওয়েবসাইট হ্যাক করে সেখানে বিতর্কিত ছবি পোস্ট করার অভিযোগ এনে আজ রোববার সহকারী প্রোগ্রামার প্রহ্লাদ দেবনাথ মামলা করেন।
এদিকে, ধর্ষণের হুমকি দেওয়ার অভিযোগ এনে সদ্যবিদায়ী এসিল্যান্ড সাইয়েমা হাসান রোববার জাফর আহমেদ নামে এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে তথ্যপ্রযুক্তি আইনে মামলা করেছেন। জাফর ডাচ-বাংলা ব্যাংকের কর্মকর্তা। ইতিমধ্যে তাকে গ্রেফতার করেছে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)।
জাফর রাজধানীর যাত্রাবাড়ি মাতুয়াইলের দনিয়া দক্ষিণ শেখদি এরশাদউল্লাহ সড়ক-২ এর আবু বকর সিদ্দিকের ছেলে।
মণিরামপুর থানার ওসি রফিকুল ইসলাম বলেন, ওয়েবসাইট হ্যাকের ঘটনায় জড়িতদের গ্রেফতারে পুলিশ তৎপর রয়েছে।

আরও পড়ুন