সীমান্ত হত্যা শূন্যের কোঠায় নামাতে ফের আশ্বাস

আপডেট: 09:38:16 08/11/2016



img

খুলনা অফিস : সীমান্ত হত্যাকাণ্ড শূন্যের কোঠায় নামিয়ে আনতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস দিয়েছেন বিএসএফ কর্মকর্তা। মঙ্গলবার খুলনায় অনুষ্ঠিত বিজিবি-বিএসএফ সীমান্ত সম্মেলনে এই আশ্বাস দেওয়া হয়।
মঙ্গলবার দিনব্যাপী নগরীর একটি অভিজাত হোটেলে বিজিবির রংপুর ও যশোর এবং বিএসএফের সাউথ বেঙ্গল, নর্থ বেঙ্গল ও গৌহাটি ফ্রন্টিয়ার পর্যায়ের সপ্তম সীমান্ত সম্মেলনে যৌথ বিবৃতিতে এ সিদ্ধান্তের কথা তুলে ধরা হয়। সন্ধ্যায় সম্মেলন শেষ হয়।
অবশ্য এর আগে বিএসএফের পক্ষ থেকে এমন আশ্বাস অনেকবার দেওয়া হয়েছে। কিন্তু তার বাস্তব প্রতিফলন ঘটেনি।
সম্মেলনে অবৈধভাবে সীমান্তে পারাপার, মানবপাচার বন্ধে আন্তর্জাতিক রীতিনীতি মেনে চলার লক্ষ্যে অরক্ষিত সীমান্তে বেড়া নির্মাণের জন্য বিজিবি ও বিএসএফের যৌথ পরিদর্শনের সিদ্ধান্ত হয়েছে। সীমান্ত এলাকায় অবাঞ্ছিত লোকদের প্রবেশ নিষেধ, মাদক পাচার বন্ধে বেড়া নির্মাণের ওপর গুরুত্বারোপও করা হয়েছে।
সম্মেলনে সীমান্তে বাংলাদেশি নাগরিকদের গুলি, হত্যা এবং আহত করার ঘটনায় বাংলাদেশের পক্ষ থেকে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করা হয়। ভারতের পক্ষ থেকে এ ধরনের ঘটনা শূন্যের কোঠায় নামিয়ে আনতে সব ধরনের পদক্ষেপ নেওয়ার আশ্বাস দেওয়া হয়। উভয়পক্ষ আন্তঃসীমান্ত অপরাধ ও সহিংসতা রোধে বিভিন্ন উপায় নিয়ে আলোচনা করে।
সভায় দুই পক্ষই আর্ন্তজাতিক সীমান্তে অপরাধী, চোরাচালানি ও সন্ত্রাসীদের চলাচল রোধে যৌথ টহল পরিচালনায় একমত পোষণ করে। সীমান্ত নিরাপত্তা ইস্যুতে তাৎক্ষণিক গোয়েন্দা তথ্যবিনিময় ও অপরাধমূলক কর্মকাণ্ডে জড়িতদের প্রতিহত করতে দৃঢ অঙ্গীকার পুনর্ব্যক্ত করা হয়। উভয়পক্ষ ভারতীয় মুদ্রা পাচার সংক্রান্ত টাস্কফোর্স দ্রুত সময়ের মধ্যে কার্যকর করতে সম্মত হয়েছে।
বিজিবির পক্ষে অতিরিক্ত মহাপরিচালক শাহরিয়ার আহমেদ চৌধুরী এবং বিএসএফের পক্ষে আইজি কে এন চোবে নেতৃত্ব দেন। সম্মেলনে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ ও যৌথ নদী কমিশনের প্রতিনিধিরা অংশ নেন।

আরও পড়ুন