সীসায় গবাদি পশুর মৃত্যু, তদন্ত টিম মাগুরায়

আপডেট: 07:22:19 06/01/2021



img

মাগুরা প্রতিনিধি : মাগুরা সদরের বারাশিয়া গ্রামে আইইডিসিআর থেকে সাত সদস্যের একটি টিম কাজ শুরু করেছে।
পুরনো ব্যাটারি ভেঙে সীসার মণ্ড তৈরির একটি কারখানার বিষক্রিয়ায় গবাদি পশুর মৃত্যুজনিত কারণ ও জনস্বাস্থ্যের ঝুঁকির বিষয়ে তদন্ত করতে তারা আজ এসেছেন।  
তারা এলাকায় বিভিন্ন পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে কথা বলে প্রয়োজনীয় তথ্য সংগ্রহ করছেন।
মাগুরার সিভিল সার্জন ডাক্তার প্রদীপকুমার সাহা জানান, তদন্ত টিম অন্তত তিনদিন মাগুরায় থাকবে। মঙ্গলবার বিকেলে তারা ঢাকা থেকে মাগুরায় এসেছেন। ইতোমধ্যে তারা জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ, সদর হাসপাতালের জরুরি বিভাগ, জনস্বাস্থ্য ও প্রকৌশল অধিদপ্তর, প্রাণিসম্পদ বিভাগের সাথে যোগাযোগ করে প্রয়োজনীয় তথ্য সংগ্রহ করেছেন। তদন্তকাজ শেষ হলে তারা সিভিল সার্জনের দপ্তরে প্রতিবেদন দাখিল করবেন। সে অনুযায়ী পরবর্তী ব্যবস্থা নেওয়া হবে। আইইডিসিআরের মেডিকেল অফিসার ডা. সোহেল রহমান সাত সদস্যের এই তদন্ত টিমের নেতৃত্ব দিচ্ছেন।
মাগুরা সদরের বারাশিয়া গ্রামে অবৈধ একটি কারখানার অ্যাসিড-সীসার বিষক্রিয়া বাতাসের ছড়িয়ে পড়ে। যার ফলে কারখানা এলাকার আশপাশের খড়-ঘাস খেয়ে গত নভেম্বরে ২৯টি গরু মারা যায়। আক্রান্ত হয় শতাধিক গরু। পাশাপাশি ওই এলাকায় উৎপাদিত ধানের চালের ভাত খেয়ে শিশুসহ তিনজনের শরীরে নানা উপসর্গ দেখা দিয়েছে। এই সংক্রান্ত বিষয়ে সম্প্রতি সুবর্ণভূমিতে একটি প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়।
বিষয়টি জানার পর জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে গত ২ ডিসেম্বর ওই ব্যাটারি কারখানাটি সিলগালা করে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হয়। পাশাপাশি গরুর মৃত্যুর কারণ ও জনস্বাস্থ্যের হুমকির বিষয়টি খতিয়ে দেখতে সিভিল সার্জনের পক্ষ থেকে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ে আবেদন জানানো হয়। যার প্রেক্ষিতে এই তদন্ত টিম মাগুরায় এসে কাজ শুরু করেছে।

আরও পড়ুন