সেই দুই শিশুর জীবনের দাম এক লাখ!

আপডেট: 07:20:06 11/02/2020



img

মণিরামপুর (যশোর) প্রতিনিধি : যশোরের মণিরামপুরে পিকআপ ভ্যানের ধাক্কায় নিহত দুই শিশুর (মেয়ে) পরিবারকে এক লাখ টাকা ক্ষতিপূরণ দিয়েছেন পিকআপের মালিকপক্ষ।
সোমবার রাতে দুই পক্ষের মধ্যে এই সমঝোতা হয়। মণিরামপুর থানার এসআই আব্দুর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।
গত রোববার বিকেলে ছোট বোন মোহনাকে (১৫ মাস) কোলে নিয়ে দেবীদাসপুর জামতলা মোড়ে খাবার কিনতে আসে সাত বছরের শিশু মৌ। ওই সময় দ্রæতগামী একটি পিকআপের ধাক্কায় ছিটকে পড়ে গুরুতর আহত হয় তারা। পরে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তাদের মৃত্যু হয়। তবে এই ঘটনায় থানায় কোনো মামলা হয়নি।
নিহত দুই শিশুর বাবা বিল্লাল হোসেনের বাড়ি খুলনা জেলার দাকোপ উপজেলার নালিয়া গ্রামে। স্ত্রী আমেনা খাতুন ও তিনি মণিরামপুরের দেবীদাসপুর গ্রামে পদ্মা ইটভাটায় কাজ করেন। দুই মেয়ে এবং এক ছেলেকে নিয়ে ভাটার পাশে ছোট একটি কুঁড়েঘরে বসবাস ওই দম্পত্তির।
এসআই আব্দুর রহমান জানান, রোববার বিকেল চারটার দিকে ছোট বোন মোহনাকে কোলে করে মৌ জামতলা মোড়ে খাবার কিনতে আসে। এসময় দ্রæতগতির একটি পিকআপ তাদের ধাক্কা দেয়। স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে মণিরামপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন। এরপর বিকেল সাড়ে চারটার দিকে মোহনার মৃত্যু হয়। অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় মৌকে যশোর জেনারেল হাসপাতালে রেফার করা হয়। সোমবার সকালে সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তারও মৃত্যু হয়।
বিল্লাল হোসেন জানান, সোমবার সকালে গ্রামের বাড়িতে ছোট মেয়ের দাফন হয়। ওই সময় খবর আসে বড় মেয়েও মারা গেছে।
মণিরামপুর থানার এসআই আব্দুর রহমান বলেন, ‘দুর্ঘটনার জন্য দায়ী পিকআপটি স্থানীয়রা ধরে থানায় সোপর্দ করে। সেটি আমাদের হেফাজতে রয়েছে। দুর্ঘটনার ব্যাপারে মামলা করেনি নিহত দুই শিশুর বাবা। সোমবার সন্ধ্যায় দুই পক্ষের মধ্যে আপস হয়েছে। ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারকে পিকআপের মালিকপক্ষ এক লাখ টাকা দিয়েছে বলে দুই পক্ষ থানায় এসে জানিয়েছে।’

আরও পড়ুন