সেনা কর্মকর্তা পরিচয়ে তিনি প্রতারণা করতেন

আপডেট: 07:43:27 11/08/2020



img

স্টাফ রিপোর্টার : পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) মো. আলমগীর হোসেন ওরফে আশিকুর রহমান রাব্বি (২৭) নামে এক যুবককে গ্রেফতার করেছে; যিনি সেনাবাহিনীর অফিসার পরিচয় দিয়ে প্রতারণা করে বেড়াতেন।
পিবিআই যশোরের এসপি রেশমা শারমিন জানান, এসআই রেজোয়ানের নেতৃত্বে তাদের একটি টিম সোমবার ভোর পাঁচটার দিকে ঝিনাইদহের কোটচাঁদপুর উপজেলার ছয়খাদা গ্রামের মো. জাহাঙ্গীর হোসেনের ছেলে রাব্বিকে গ্রেফতার করে। সেই সময় তার কাছ থেকে একটি এইচপি ব্রান্ডের কোরআই৫ ল্যাপটপ উদ্ধার করা হয়।
যশোর কোতয়ালী থানায় গত ১০ আগস্ট রুজু করা একটি মামলার (নম্বর ২৫) সূত্র ধরে রাব্বিকে গ্রেফতার করা হয়। ওই মামলার বাদী মোছা. হামিদা খাতুন (২১) নামে এক যুবতী অভিযোগ করেন, মোবাইল ফোনের মেসেঞ্জারের মাধ্যমে তাদের দুইজনের পরিচয় ও প্রেম হয়। পরিচয়কালে রাব্বি নিজেকে সেনাবাহিনীর ক্যাপ্টেন পরিচয় দেন। বেশ কিছুদিন পর পারিবারিক সমস্যার কথা বলে রাব্বি প্রতারণার মাধ্যমে ওই তরুণীর কাছ থেকে নগদ ৮০ হাজার টাকা নেন। এমনকি তার অফিসে ব্যবহৃত ল্যাপটপটিও কৌশলে হাতিয়ে নেন। এক মাসের মধ্যে টাকা ও ল্যাপটপ ফেরত দেওয়ার কথা থাকলেও রাব্বি তা দেননি। যোগাযোগ করলে উল্টো তিনি হামিদাকে গালিগালাজ করেন।
মামলাটি পিবিআই স্বউদ্যোগে তদন্তের দায়িত্ব নেয়। তদন্তভার অর্পণ করা হয় পিবিআইয়ের এসআই রেজোয়ানের ওপর। তিনি ফোর্স নিয়ে অভিযান চালিয়ে রাব্বিকে গ্রেফতার করেন।
পিবিআইয়ের এসপি বলছেন, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে রাব্বি তার বিরুদ্ধে উত্থাপিত অভিযোগ স্বীকার করেছেন। শুধু তা-ই নয়, এই যুবক সেনাবাহিনীর পোশাক পরে ছবি তুলে নিজের প্রকৃত পরিচয় গোপন করে প্রতারণা করে আসছিলেন। একই কায়দায় তিনি আরো তরুণীদের কাছ থেকে টাকাপয়সা হাতিয়ে নিয়েছেন বলেও স্বীকার করেন।
গ্রেফতার রাব্বিকে আজ আদালতে সোপর্দ করে পিবিআই। সেখানে তিনি স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন বলে জানান পিবিআইয়ের এসপি রেশমা শারমিন।

আরও পড়ুন