স্বপ্নে বিভোর নূর ইসলাম অ্যাকাডেমির ফুটবলাররা

আপডেট: 01:45:58 26/11/2020



img

স্টাফ রিপোর্টার, বেনাপোল (যশোর) : ‘সুযোগ পেলে মানুষ হবো, মাদক একেবারে নয়, খেলাধুলায় মিলবে জয়’- এ স্লোগানে বিশ্বাস রেখে যশোরের সীমান্তবর্তী বেনাপোলে সুবিধাবঞ্চিত শিশু-কিশোরদের নিয়ে গড়ে উঠেছে আলহাজ নূর ইসলাম ফুটবল অ্যাকাডেমি।
নিয়মিত অনুশীলনের মাধ্যমে এখন তারা নিজেদের পরিবর্তন করে ও বড় খেলোয়াড় হওয়ার স্বপ্ন দেখছে। ইতোমধ্যে এসব কিশোরদের একজন অনূর্ধ্ব ১৫তে এশিয়ার সেরা গোলকিপার নির্বাচিত হয়েছে। অন্যরাও নিয়মিত প্রচেষ্টা অব্যাহত রেখেছে।  
ঢাকা বা তার আশপাশের এলাকার সুবিধাবঞ্চিত কিশোরেরা যখন মাদক, পাচার, চাঁদাবাজি, হত্যাসহ নানা অপরাধমূলক কর্মকাণ্ডে জড়িয়ে ‌'কিশোর গ্যাং' হিসেবে পরিচিত হচ্ছে, ঠিক সেইসময় বেনাপোল সীমান্তের শিশু-কিশোররা বড় হওয়ার স্বপ্নে ফুটবল অনুশীলনে ব্যস্ত সময় পার করছে। ৫ বছর আগেও তাদের অবস্থা অনেকটা ঢাকার কিশোর গ্যাংয়ের মতো ছিল। আলহাজ নূর ইসলাম ফুটবল অ্যাকাডেমি তাদের ওই পথ থেকে ফেরাতে এগিয়ে আসে।
এই অ্যাকাডেমির খেলোয়াড় মেহেদী হাসান ২০১৮ সালে নেপালে অনুষ্ঠিত অনূর্ধ্ব-১৫তে ভারত, নেপাল, পাকিস্তান ও মালদ্বীপের মধ্যে সাব ফুটবল টুর্নামেন্টে পাকিস্তানকে হারিয়ে এশিয়ার সেরা গোলকিপার নির্বাচিত হয়। আবার কেউ খেলছে ঢাকা আবাহনীসহ প্রথম বিভাগের বিভিন্ন ক্লাবে। এছাড়াও বিভিন্ন জেলা ও উপজেলায় যাচ্ছে তারা টুর্নামেন্ট খেলতে।
স্থানীয়রা মনে করছেন, খেলাধুলায় এসব কিশোররা যেমন বিপথগামী থেকে বাঁচবে, তেমনি নিজেদের ভাগ্যও পরিবর্তন করবে। তবে ক্লাবটিতে দেখা গেছে অর্থনৈতিক সংকট। সহযোগিতা পেলে এসব কিশোররা আরও ভালোভাবে এগিয়ে যেতে পারবে বলে মনে করছেন অ্যাকাডেমি সংশ্লিষ্টরা।
কিশোর খেলোয়াড়রা জানায়, ইচ্ছে থাকা সত্ত্বেও সংসারে অভাব-অনটনের কারণে পড়ালেখা, খেলাধুলা কোনোটাই হতো না। ভবঘুরের মতো জীবন কাটছিল। নূর ইসলাম ফুটবল অ্যাকাডেমির মাধ্যমে খেলার সুযোগ পেয়ে এখন তারা বড় ফুটবলার হওয়ার স্বপ্ন দেখছে।
কোচ সাব্বির আহম্মেদ পলাশ জানান, বিপথ থেকে ফিরিয়ে আনা হয়েছে এসব শিশু-কিশোরদের। তাদের যথেষ্ট প্রতিভা রয়েছে। সব ধরনের সুযোগ, সুবিধা পেলে সবার বড় হওয়ার স্বপ্ন পূরণ হবে। প্রতিমাসে মোটা অংকের অর্থ খরচ করে গড়ে তোলা হচ্ছে ভাল মানের ফুটবলার। নিয়মিত নার্সিং করা হচ্ছে তাদের।
নূর ইসলাম অ্যাকাডেমির প্রতিষ্ঠাতা পৌরমেয়র আশরাফুল আলম লিটন জানান, এ সীমান্তে হাত বাড়ালে মাদকের দেখা মেলে। মাদককে ‌'না' বলে আজ তারা এগিয়ে যাচ্ছে। মেহেদী হাসান অনূর্ধ্ব ১৫তে এশিয়ার একজন সেরা গোলকিপার হয়ে দেশের গৌরব এনে দিয়েছে। খুব শিগগিরই জাতীয় পর্যায়ে আরো এক ডজন কৃতি খেলোয়াড় খেলবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন।

আরও পড়ুন