হরিণাকুণ্ডুতে আবার পুড়েছে ২৫ বিঘা বরজ

আপডেট: 06:42:48 04/03/2021



img
img

কালীগঞ্জ (ঝিনাইদহ) প্রতিনিধি : ঝিনাইদহের হরিণাকুণ্ডুতে আবারো আগুনে ভস্মিভূত হয়েছে প্রায় ২৫ বিঘা জমির পানের বরজ।
বৃহস্পতিবার বিকেল তিনটার দিকে উপজেলার মকিমপুর গ্রামের মাঠে বরজে আগুন লাগে। খবর পেয়ে ঝিনাইদহ ফায়ার সার্ভিসের দুইটি ইউনিট আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে।
আগুনে অন্তত অর্ধ কোটি টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে জানিয়েছেন কৃষকরা।
এর আগে ২৮ ফেব্রুয়ারি একই উপজেলা মান্দারবাড়িয়া ও শিতলী গ্রামে প্রায় ১০০ বিঘা জমির পান বরজ আগুনে পুড়ে যায়।
ঝিনাইদহ ফায়ার সার্ভিসের সাব-স্টেশন অফিসার প্রদীপকুমার জানান, আগুনের খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা ঘটনাস্থলে গিয়ে প্রায় দেড় ঘণ্টা চেষ্টার পর বিকেল পাঁচটার দিকে আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে। তার আগেই ওই গ্রামের কৃষক রশিদুল ইসলাম, নজরুল লস্করসহ প্রায় ১৫ কৃষকের প্রায় ২৫ বিঘা জমির পান পুড়ে ভস্ম হয়ে যায়।
স্থানীয়দের ধারণা, বিড়ি-সিগারেটের আগুন থেকে আগুনের সূত্রপাত হতে পারে। তবে কোন কৃষকের কত বিঘা জমির পান পুড়েছে তা প্রাথমিকভাবে জানাতে পারেনি ফায়ার সার্ভিস।
পান বরজে কাজ করা কৃষক সেলিম হোসেন বলেন, ‘আমরা বরজে পান তুলছিলাম। এমন সময় পট পট শব্দে ছুটে গিয়ে দেখতে পাই, বরজের একপাশে আগুন লেগেছে। মাঠে কর্মরতদের সহযোগিতায় আগুন নিয়ন্ত্রণের চেষ্টার করি। কিন্তু আগুনের লেলিহান শিখার কাছাকাছি পৌঁছাতে পারছিলাম না। পরে ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা এসে আগুন নেভানোর কাজ শুরু করে। কিন্তু তার আগেই বরজ পুড়ে যায়।’
ঘটনাস্থলে হাজির রোকসানা নামে এক বৃদ্ধা হাহাকার করে বলছিলেন, ‘আমার সব শেষ হয়ে গেছে। পানই ছিল আমার একমাত্র ভরসা। এখন আমি কী খাবো?’
গত রোববার এই হরিণাকুণ্ডুতেই আগুন লেগে পুড়ে যায় প্রায় ১০০ বিঘার পানবরজ। বিড়ির আগুন থেকে এই আগুনের সূত্রপাত হয়েছিল বলে স্থানীয়রা ধারণা করেছিলেন।

আরও পড়ুন