১৪ দল আদর্শিক জোট নয় : সমন্বয় কমিটি

আপডেট: 09:03:27 02/11/2019



img

স্টাফ রিপোর্টার : বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির আদর্শ রক্ষায় সমন্বয় কমিটির সমন্বয়ক ইকবাল কবির জাহিদ এক বিবৃতিতে জানান, আজ শনিবার সকাল ১১ টায় কমরেড বিমল বিশ্বাসের সাথে এক আলোচনাসভা তারই বাসভবনে অনুষ্ঠিত হয়।
আলোচনায় কমরেড নূরল হাসান, কমরেড ইকবাল কবির জাহিদ, কমরেড অনিল বিশ্বাসসহ সমন্বয় কমিটির অন্য নেতারা উপস্থিত ছিলেন।
সভায় বলা হয়, ওয়ার্কার্স পার্টি কখনো নীতিগত সিদ্ধান্ত নেয়নি যে, ১৪ দল একটি আদর্শিক জোট। কিন্তু সাংবাদিক সম্মেলনে দলের সাধারণ সম্পাদক বলেছেন, “১৪ দলে কোনো সমস্যা নাই, ১৪ দল আদর্শিক জোট এবং বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে এগিয়ে চলেছে।  ১৪ দলে থাকার কারণে পার্টি বিকশিত হয়েছে।”
তার এই বক্তব্যে প্রমাণিত হয়, তারা বুর্জোয়া আর কমিউনিস্ট মতাদর্শ একাকার করে ফেলেছেন।  আওয়ামী লীগের হেফাজত ও সাম্প্রদায়িক শক্তির অপচেষ্টার রাজনীতি আজ ওয়ার্কার্স পার্টির আদর্শ হিসেবে রূপান্তরিত হয়েছে।
কমরেড বিমল বিশ্বাস পার্টি থেকে নিজের নাম প্রত্যাহার করে নিলেও তাকে বহিষ্কার করা হয়েছে।  যা সাধারণ গণতান্ত্রিক মূল্যবোধ পরিপন্থী শুধু নয়, ব্যক্তি আক্রোশের বহিঃপ্রকাশ ও নিন্দনীয়।  এহেন আচরণের তীব্র নিন্দা করা হয়।
অপরদিকে, শঠতার আশ্রয় নিয়ে কংগ্রেস বর্জনের আহ্বানকারী ৬ নেতা সম্পর্কে পরে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে বলে নেতৃবৃন্দের বক্তব্য কর্মীদের বিভ্রান্ত করার কুটকৌশল।  ওয়ার্কার্স পার্টি আদর্শগতভাবে অন্তঃসারশূন্য হয়েছে। কংগ্রেসের সাজসজ্জার যতই জৌলুষ দেখাক না কেন, অচিরেই তাদের লেজুড়বৃত্তি, সুবিধাবাদ ও বিলোপবাদী রাজনীতির পরিণতি দেশবাসীর সামনে স্পষ্ট হবে; নেতা কর্মীদের মধ্যকার বিভ্রান্তিও দূর হবে বলে আশা প্রকাশ করেন।
সভা থেকে টেলিফোনে জানতে চাইলে পলিটব্যুরো সদস্য কমরেড মনোজ সাহা বলেন, আপনাদের প্রতি আমার নৈতিক সমর্থন ছিল এবং থাকবে।
নেতৃবৃন্দ বলেন, দেশের বর্তমান বাস্তবতায় কমিউনিস্ট ও বাম, গণতান্ত্রিক শক্তির ঐক্যকেই এগিয়ে নিতে হবে।
সমন্বয় কমিটির উদ্যোগে আগামী ২৯-৩০ নভেম্বর দু’দিনব্যাপি সম্মেলন যশোরে অনুষ্ঠিত হবে পার্টির জেলা সাধারণ সম্পাদক জিল্লুর রহমান ভিটু জানিয়েছেন। 

আরও পড়ুন