‘গ্রাম্য শত্রুতায়’ পানের বরজে আগুন

আপডেট: 03:01:38 11/01/2020



img
img

নড়াইল প্রতিনিধি : নড়াইলে ‘গ্রাম্য শত্রুতার জের ধরে’ পানের বরজে আগুন দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে।
জেলার নড়াগাতি থানার মাউলি ইউনিয়নের ঘষিবাড়িয়া গ্রামে গতরাতে দেওয়া আগুনে পাঁচ লক্ষাধিক টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে অভিযোগ করা হচ্ছে।
এঘটনার প্রতিবাদ জানিয়ে অপরাধীদের বিচারের দাবিতে মানববন্ধন করেছেন এলাকাবাসী। ক্ষতিগ্রস্ত পানবরজের পাশে এই মানববন্ধন হয়।
আজ বেলা ১১টায় ঘষিবাড়িয়া গ্রামের পানের বরজের সামনে এ মানববন্ধন হয়।
ক্ষতিগ্রস্ত চাষি প্রভাস দাস বলেন, ‘আমি ২৬ শতক জমির ওপর পানের চাষ করেছি জীবিকা নির্বাহ করার জন্য। কিন্তু গ্রাম্য শত্রুতার জন্য একই গ্রামের সুব্রত দাস, নন্দদুলাল পাল, অমিত পাল, সমির দাস, কৃষ্ণ দাস, সঞ্জয় দাস, হারান দাসসহ আরো কয়েকজন আমাকে হত্যার হুমকি দিয়েছিল। তারাই আমার পানের বরজে আগুন দিয়ে পাঁচ লক্ষাধিক টাকার ক্ষতি করেছে।’
এদিকে, ঘটনার প্রতিবাদে আয়োজিত মানববন্ধন চলাকালে বক্তব্য দেন নড়াইল জেলা পরিষদের সদস্য মো. হাদিউজ্জামান হাদি, ক্ষতিগ্রস্ত পানের বরজের মালিক প্রভাস দাস, মাউলি ইউনিয়নের চার নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য শেখ জাকারিয়া, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সম্পাদক সবুজকুমার দাস, ইউনিয়ন যুবলীগের সাবেক সাধারন সম্পাদক প্রদ্যুৎ দাস, সুনীল দাস, অপর্নারানি দাস প্রমুখ।
জেলা পরিষদের সদস্য মো. হাদিউজ্জামান হাদি এ ধরনের ন্যাক্কারজনক ঘটনার নিন্দা জানিয়ে বলেন, প্রকৃত অপরাধীদের আইনের আওতায় এনে বিচার করা হোক। যাতে আর কেউ এ ধরনের ঘটনা ঘটাতে সাহস না পায়।
তবে অভিযোগ অস্বীকার করেছেন অভিযুক্তদের অন্যতম সুব্রত দাস। তার ভাষ্য, ‘আমাদের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করা হচ্ছে।’
নড়াগাতি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. আলমগীর কবির বলেন, পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। লিখিত অভিযোগ পেলে তদন্তসাপেক্ষে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আরও পড়ুন