‘ভূত দেখে’ ফেরার পথে দুর্ঘটনা, ছাত্রের মৃত্যু

আপডেট: 08:35:06 25/09/2019



img

মণিরামপুর (যশোর) প্রতিনিধি : মণিরামপুরে ভূত দেখতে গিয়ে ফেরার পথে নসিমন থেকে পড়ে সজীব হোসেন (১১) নামে এক স্কুলছাত্রের মৃত্যু হয়েছে।
সজীব উপজেলার এড়েন্দা গ্রামের কৃষক শফিকুল ইসলামের ছেলে। সে এড়েন্দা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পঞ্চম শ্রেণির ছাত্র।
বিদ্যালয়ের সভাপতি কাজী আসাদুজ্জামান আসাদ জানান, মঙ্গলবার (২৪ সেপ্টেম্বর) দুপুরে স্কুল টিফিনের সময় পাশের বাগানে ভূত দেখা গেছে বলে গুজব ওঠে। বাগানের অবস্থান স্কুল থেকে ২০০-৩০০ গজ দূরে। এসময় কৌতূহলবশত ১০-১২ জন বন্ধুর সঙ্গে সেই বাগানে যায় সজীব। কিন্তু বাগানে গিয়ে তারা এক মস্তিষ্কবিকৃত নারীকে (পাগলী) দেখতে পায়। ফেরার পথে খেলার ছলে একটি চলন্ত নসিমনে ওঠে তারা। নসিমনটি স্কুলের কাছাকাছি পৌঁছুলে রাস্তার পাশের আলুগাছের ঝুলন্ত লতা গলায় জড়িয়ে যায় সজীবের। এসময় নিচে পড়ে মাথায় আঘাত পায় সে। খরব পেয়ে স্বজনরা দ্রুত তাকে যশোর জেনারেল হাসপাতালে নেন। ‘অবস্থা গুরুতর নয়’ বলে ব্যবস্থাপত্র দিয়ে চিকিৎসক তাকে বাড়ি পাঠিয়ে দেন। বাড়িতে আনার পর রাতে অসুস্থ হয়ে পড়ে সজীব। রাত সাড়ে ১১টার দিকে আবার যশোর জেনারেল হাসপাতালে নেওয়া হলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। আইনি জটিলতা এড়াতে বিনা ময়নাতদন্তে বুধবার (২৫ সেপ্টেম্বর) দুপুরে সজীবের মরদেহ বাড়িতে আনা হয় বলে জানান তিনি।
খেদাপাড়া ক্যাম্পের আইসি এসআই সালাউদ্দিন স্কুলছাত্রের মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

আরও পড়ুন