‘প্রেমিকার ধর্ষক-খুনি’ ভারতে পালানোর সময় গ্রেফতার

আপডেট: 05:05:28 26/09/2021



img

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি: ধর্ষণের পর গলায় বৈদ্যুতিক তার পেঁচিয়ে হত্যা করে ভারতে পালিয়ে যাওয়ার সময় গ্রেফতার হয়েছেন পার্থ মণ্ডল নামে এক যুবক। তিনি দশম শ্রেণির ছাত্রী পূর্ণিমা হত্যামামলার আসামি এবং ওই ছাত্রীর কথিত প্রেমিক।
সাতক্ষীরার বৈকারি সীমান্ত দিয়ে পালিয়ে যাওয়ার সময় শনিবার রাতে ডিজিটাল প্রযুক্তি ব্যবহার করে তাকে গ্রেফতার করা হয় বলে জানান সাতক্ষীরার পুলিশ সুপার।
তিনি বলেন, ‘পার্থ সরল স্বীকারোক্তি দিয়ে জানিয়েছে সে কেন ও কীভাবে তার প্রেমিকাকে খুন করেছে।’
পার্থ মণ্ডল দেবহাটা উপজেলার টিকেট গ্রামের শিবু মণ্ডলের ছেলে। সে কালিগঞ্জ প্যারা মেডিকেলের প্রথম বর্ষের ছাত্র।
ধর্ষণের পর খুন হওয়া পূর্ণিমা দাস একই গ্রামের শান্তিরঞ্জন দাসের মেয়ে ও গাভা স্কুলের দশম শ্রেণির ছাত্রী।
রোববার তার সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত প্রেস ব্রিফিংয়ে পুলিশ সুপার মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, ‘টিকেট গ্রামের স্কুলছাত্রী পুর্ণিমা দাসের সাথে পার্থ মণ্ডলের প্রেমের সম্পর্ক ছিল। কিছুদিন আগে প্রেমিক পার্থ দুর্ঘটনায় আহত হয়ে চিকিৎসাধীন ছিল। ওই সময় পূর্ণিমা আরেকজনের প্রেমে পড়ে বলে জানতে পারে সে। এরপর থেকে সে পূর্ণিমাকে হত্যার পরিকল্পনা করে বলে স্বীকার করেছে।’
‘বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় পূর্ণিমা প্রাইভেট পড়তে গেলে তাকে ফোনে ক্ষুদে বার্তা পাঠিয়ে ডেকে নেয় পার্থ। পরে তাকে একটি জঙ্গলের মধ্যে নিয়ে প্রথমে ধর্ষণ করে। এরপরই সে পূর্ণিমার গলায় বৈদ্যুতিক তার পেঁচিয়ে হত্যা করে,’ বলেন এসপি।

আরও পড়ুন