দিল্লির আদালতকক্ষে গুলিতে গ্যাংস্টার নিহত

আপডেট: 09:09:13 24/09/2021



img
img

সুবর্ণভূমি ডেস্ক: ভারতের রাজধানী নয়াদিল্লির একটি আদালতকক্ষে গোলাগুলিতে এক গ্যাংস্টারসহ তিনজন নিহত হয়েছেন।
শুক্রবার দুপুরে এই গোলাগুলি হয়। ঘটনায় বেশ কয়েক জন আহত হয়েছেন। দিল্লির কুখ্যাত মোস্ট ওান্টেড গ্যাংস্টার জিতেন্দ্র গোগীর মৃত্যু হয়েছে এ লড়াইয়ে।
জিতেন্দ্র গোগীকে শুক্রবার উত্তর দিল্লির রোহিণীর আদালতে হাজির করা হয়। ওই সময় তাকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে দুই দুর্বৃত্ত।
এই দুর্বৃত্তরা আইনজীবীদের পোশাক পরে আদালতকক্ষে প্রবেশ করেছিল। তারা গোগীর প্রতিপক্ষ গ্যাংয়ের সদস্য বলে ধারণা করা হচ্ছে।
গোগীর বিরুদ্ধে একাধিক মামলা রয়েছে। গত এপ্রিলে তাকে গ্রেফতার করে দিল্লি পুলিশের বিশেষ বিভাগ। সে ধরনেরই এক মামলায় আদালতে আনা হয়েছিল গোগীকে।
দুর্বৃত্তদের গুলি চালনার মধ্যেই পাল্টা গুলি চালিয়েছে পুলিশও। সেই গুলিতে হামলাকারীদের দু’জনের মৃত্যু হয়েছে বলে মনে করা হচ্ছে।
ভারতীয় গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, আদালত চত্বরে ৩৫ থেকে ৪০ রাউন্ড গুলি চলেছে। সেখানে কর্মরত এক নারী আইনজীবীও আহত হন।
রোহিণীর ডেপুটি পুলিশ কমিশনার বলেছেন, ‘‘আইনজীবীর পোশাক পরে আততায়ীরা আদালতের ভেতরেই গোগীর উপর গুলি চালায়। তারপর পুলিশও পাল্টা গুলি ছোড়ে।”
দিল্লির পুলিশ কমিশনার রাকেশ আস্থানা বলেছেন, পুলিশ দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়ায় দুই হামলাকারী নিহত হয়। তাদের সঙ্গে গোগীকে নিয়ে মোট তিনজন নিহত হয়েছে।
এই হামলার ঘটনায় দিল্লি আদালতের নিরাপত্তা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। ঊর্ধ্বতন এক রাজনীতিবিদ বলেছেন, এই ঘটনা আদালতের নিরাপত্তা পরিকল্পনায় বড় ধরনের ফাঁকই সামনে নিয়ে এসেছে।
২০১০ সালে অপরাধজগতে প্রবেশ করেছিলেন গ্যাংস্টার জিতেন্দ্র গোগী। পরে তিনি নতুন গ্যাং তৈরি করেছিলেন। কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে গণমাধ্যম জানায়, অপরাধজগতে গোগীর দ্রুত উত্থানে তিনি বহু গ্যাংয়ের নিশানা হয়ে উঠেছিলেন।
সূত্র: বিবিসি, বিডিনিউজ

আরও পড়ুন