অনুমতি ছাড়াই বলুহ মেলা!

আপডেট: 10:35:58 14/09/2020



img
img

চৌগাছা (যশোর) প্রতিনিধি : এ বছর করোনা প্রাদুর্ভাবের কারণে চৌগাছায় ‘পীর বলুহ দেওয়ানের (রহ.) মেলা’র অনুমতি দেয়নি প্রশাসন। তা সত্ত্বেও আগামীকাল মঙ্গলবার শুরু হতে যাচ্ছে মেলা।
পীরের ওরস উপলক্ষে প্রতিবছর ভাদ্র মাসের শেষ মঙ্গলবার মেলা অনুষ্ঠিত হয়। কিন্তু পরিস্থিতিগত কারণে এবার মেলার অনুমতি মেলেনি। অভিযোগ রয়েছে, তবু মিথ্যা তথ্য ছড়িয়ে চলছে মেলা আয়োজনের প্রস্তুতি।
চৌগাছা উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) প্রকৌশলী এনামুল হক বলেন, ‘আমি শুনেছি বলুহ দেওয়ানের ওরস উপলক্ষে লোকসমাগম হয়। সেখানে কিছু দোকানপাট বসে। সেই হিসেবে প্রশাসনের পক্ষ থেকে অনুমতি নিয়ে মেলার আয়োজন করেন স্থানীয়রা। এবছরে করোনার কারণে মেলার অনুমতি দেওয়া হয়নি।’
উপজেলার লাখো মানুষের জীবনকে ঝুঁকিমুক্ত রাখতে এই বছর মেলার অনুমতি না দিতে কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এসএম হাবিবুর রহমান ও উপজেলা চেয়ারম্যান ড. মোস্তানিছুর রহমানসহ বিশিষ্টজনেরা।
সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, মেলা আয়োজক কমিটি যথারীতি যশোরের জেলা প্রশাসক বরাবর আবেদন করে। কিন্তু করোনার কারণে সোমবার এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত মেলার অনুমতি মেলেনি।
স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান জয়নাল আবেদীন মুকুল বলেন, ‘আমি চাই না আমার ইউনিয়নসহ উপজেলাবাসী করোনা আক্রান্ত হোক। এবছর করোনার ঝুঁকি নিয়ে মেলার আয়োজন করা উচিত হবে না।’
উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মোছা. নুৎফুন্নাহার লাকি বলেন, বিভিন্ন স্থান থেকে হাজারো মানুষের সমাগম হবে মেলায়। এতে করোনা ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা রয়েছে। সেই কারণে এবার মেলা বন্ধ রাখা উচিত।
চৌগাছা উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান ও উপজেলা যুবলীগের আহ্বায়ক দেবাশীষ মিশ্র জয় বলেন, যে করোনার ভয়ে ঈদের জামাত এবং দুর্গাপূজার মতো ধর্মীয় উৎসব পালনে বিভিন্ন বিধিনিষেধ রয়েছে। সেখানে মানুষের স্বাস্থ্য ঝুঁকি নিয়ে অনুমতি ছাড়া অবৈধভাবে মেলার আয়োজন করাটা বোকামি।
চৌগাছা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বলেন, ‘করোনা থেকে বাঁচতে এবং সাধারণ জনগণকে বাঁচাতে এ বছর মেলার অনুমতি দেওয়া হয়নি। অনুমতি ছাড়া যারা অবৈধভাবে মেলার আয়োজন করছেন, তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য ওসি সাহেবকে বলেছি। প্রয়োজনে আমি নিজে সেখানে যাব।’
চৌগাছা থানার ওসি রিফাত খান রাজীব বলেন, ‘এখনো মেলার অনুমতি হয়নি। অনুমতি ছাড়া মেলা হওয়ার কোনো সুযোগ নেই। আমি কিছু সময়ের মধ্যে সেখানে যাব। বলুহ দেওয়ানের ওরসস্থলে যদি মেলা উপলক্ষে কোনো স্টল দেওয়া হয়, তাহলে তা সরিয়ে দেওয়া হবে।’
মেলা আয়োজক কমিটির সভাপতি স্থানীয় ইউপি সদস্য মনিরুজ্জামান মিলন বলেন, ‘এখন পর্যন্ত মেলার অনুমতি পাওয়া যায়নি। আজ মঙ্গলবার যশোরের এসপি মহোদয় আসতে চেয়েছেন। আসার পরে যদি অনুমতি দেন তাহলে মেলা হবে, অন্যথায় সুযোগ নেই।’
মেলার অনুমতির আগেই জায়গা বরাদ্দ দিয়ে টাকা নেওয়ার ব্যাপারে তিনি বলেন, ‘কারো কাছ থেকে অগ্রিম টাকা নেওয়া হয়নি।’

আরও পড়ুন