অন্তরঙ্গ দৃশ্যের শুটে সামলাতে পারেননি যে তারকারা

আপডেট: 02:25:11 15/07/2021



img

সুবর্ণভূমি ডেস্ক : বলিউডে অন্তরঙ্গ দৃশ্য বা ধর্ষণের দৃশ্য শুটের সময় বহু ক্ষেত্রে নায়িকাদের পড়তে হয়েছে অভিনেতাদের অভ্যবতার জালে! অনেক সময় এমন পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে সেটে যে নায়িকারা লজ্জার মুখে পড়েছেন এবং পরবর্তীতে সেই অভিনেতাদের সঙ্গে আর কাজ করতে চাননি। পেশাদারি মনোভাব থেকে সরে গিয়ে কোথাও অভিনেতাদের ব্যক্তিগত আবেদন ধরা পড়েছে নায়িকাদের সামনে। আর তাতেই বেড়েছে অস্বস্তি। বলিউডের তেমনই কিছু শুটিং-এর ঘটনা তুলে ধরা হলো।
মিঠুন এবং মাধুরীর ছবি 'প্রেম প্রতিজ্ঞা'য় এমন একটি ঘটনা ঘটেছিল। তবে সেটি মিঠুন নন, ঘটেছিল রঞ্জিত ও মাধুরীর মধ্যে। সেই ছবিতে খলনায়কের ভূমিকায় ছিলেন রঞ্জিত। একটি দৃশ্যে তিনি সত্যিই মাধুরীর ওপর জোর করার চেষ্টা করেন। তিনি শুটে মেজাজ হারিয়ে ফেলেন যা দেখে মাধুরীও মারাত্মক ভয় পেয়ে যান!
একই রকমভাবে 'দয়াবান' ছবিতে বিনোদ খান্নার সঙ্গে মাধুরীর অন্তরঙ্গ দৃশ্য শুট ছিল। সেখানে তিনি যেন সত্যি সত্যিই মাধুরীর সৌন্দর্য্যে মোহিত হয়ে যান। শুটিং চলাকালীনই নিজের ওপর নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেলেন এবং মাধুরীর ওপর যৌনতা প্রয়োগ করেন। এই দৃশ্য নিয়ে পরে অনেক সমালোচনাও হয়।
জয়াপ্রদার সঙ্গে একটি ছবিতে অভিনয় করছিলেন দলিপ তাহিল। শুটিং শুরু হতেই নিজের ওপর নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেলেন দলিপ। জয়াপ্রদাকে বলপূর্বক ধরে ফেলেন। এতে জয়ার ওপর চাপ তৈরি হয়। নিজেকে দলিপের থেকে ছাড়িয়ে নেওয়ার চেষ্টা করে ব্যর্থ হন জয়া। তারপর তিনি দলিপকে চড় মারেন এবং তাকে মনে করিয়ে দেন যে, এটি বাস্তব নয়, ছবির শুট চলছে।
'ইয়ে জাওয়ানি হ্যায় দিওয়ানি'র একটি দৃশ্য ছিল, যেখানে ইভলিন শর্মা হাঁটুতে আঘাত পান এবং রণবীর সেই হাঁটুতে হাত দিয়ে শেষ পর্যন্ত ফ্লার্টিং করবেন। জানা যায় যে, সেই দৃশ্য করতে করতে রণবীর এতটাই মগ্ন হন যে, তিনি এলভিনের সঙ্গে ফ্লার্ট করতেই থাকেন। এমনকি পরিচালক কাট বলার পরও!
সম্প্রতি জ্যাকুলিন ও সিদ্ধার্থ  মালহোত্রার ছবি 'অ্যা জেন্টলম্যান'-এর শুটিং-এ তাদের মধ্যে দারুণ রসায়নের কথা শোনা যাচ্ছিল। তাদের একটি চুম্বনের দৃশ্য শুটের সময় দু’জনে এমনভাবে চুম্বনরত ছিলেন যে, পরিচালক কাট বলার পরও তাদের হুঁশ ছিল না। এ যেন বাস্তবে একে অপরকে চুমু খাচ্ছিলেন সিদ্ধার্থ-জ্যাকুলিন।
সূত্র: মানবজমিন