'সংক্রমণপ্রবণ এলাকায় নজরদারি বাড়ানো হচ্ছে'

আপডেট: 02:32:16 14/06/2021



img

স্টাফ রিপোর্টার: যশোরে যে এলাকায় করোনা সংক্রমণ বেশি আশঙ্কা করা হচ্ছে, সেই এলাকায় নজরদারি বাড়ানো হয়েছে। জনসচেতনতা বাড়িয়ে স্বাস্থ্যবিধি মানতে বিভিন্ন স্থানে চেকপোস্ট বসিয়ে ভ্রাম্যমাণ আদালত ও পুলিশ কাজ করছে। একইসাথে জনসচেতনতায় কাজ করে চলেছেন জনপ্রতিনিধি, স্বেচ্ছাসেবক ও রাজনৈতিক নেতারা।
রোববার দুপুর আড়াইটার শহরের বিভিন্ন জায়গায় চেকপোস্ট পরিদর্শন শেষে দড়াটানায় যশোরের জেলা প্রশাসক মো. তমিজুল ইসলাম খান ও পুলিশ সুপার প্রলয়কুমার জোয়ারদার সাংবাদিকদের একথা বলেন।
পুলিশ সুপার প্রলয়কুমার জোয়ারদার বলেন, 'আমরা নিজেরা স্বাস্থ্যবিধি মানি এবং উৎসাহ প্রদান করি। করোনা প্রতিরোধে জনসচেতনতার বিকল্প নেই। পুলিশ নিরলসভাবে মানুষকে সচেতন করার কাজ করছে। সামনে ঈদুল আজহায় গরুর হাটে মানুষের উপস্থিতি হবে। গরুর হাটে মানুষ স্বাস্থ্যবিধি মেনে আসা যাওয়া করে সে বিষয়ে সজাগ আছি।'
এক প্রশ্নের জবাবে জেলা প্রশাসক বলেন, 'যশোর শহর ও অভয়নগরের পৌরএলাকায় করোনা সংক্রমণ বেশি এবং ইউনিয়ন পর্যায়ে কম। সে কারণে যশোর ও অভয়নগর পৌরসভায় ম্যাজিস্ট্রেট ও পুলিশ বেশি নজরদারি করছে। তবে জনসাধারণ স্বাস্থ্যবিধি মানছে। আশা করা যায়, আমরা অচিরেই এই পরিস্থিতি থেকে সরে আসতে পারব।'
এসময় অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ডিএসবি) মোহাম্মাদ জাহাঙ্গীর আলম, কোতয়ালী থানার ওসি মো. তাজুল ইসলাম, ডিআইও ওয়ান মশিউর রহমানসহ পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

আরও পড়ুন